শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস পালিত

প্রকাশিত: ১:৪৪ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২০
দলীয় সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করেছে আওয়ামী লীগ -ফোকাস বাংলা

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবসের দ্বাদশ বার্ষিকী পালিত হয়েছে।

করোনা সংকটের কারণে আনুষ্ঠানিক কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি না থাকলেও দিনটি উপলক্ষে দলীয় সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করেছে আওয়ামী লীগ। এ সময় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও মঙ্গল কামনা এবং দেশ ও বিশ্বকে করোনা থেকে মুক্তির জন্য মোনাজাত করা হয়।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, আফম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

পরে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, ২০০৭ সালের যেদিন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে বন্দি করা হয়েছিল, সেদিন শুধু তাকেই নয়, গণতন্ত্রকেও বন্দি করা হয়েছিল। ২০০৮ সালের ১১ জুন দীর্ঘ ১১ মাস কারাভোগের পর মুক্ত হন তিনি। এ দিনটি প্রকৃতপক্ষে শুধু শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস নয়, গণতন্ত্রেরও মুক্তি দিবস। কারণ তিনি সারাজীবন ধরে গণতন্ত্র ও মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করেছেন।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা গণতন্ত্র ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার অগ্নিবীণা। তিনি যেভাবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন- তা বিশ্বের সামনে এক অনন্য নেতৃত্বের উদাহরণ। তিনি আজ শুধু প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি নন, বিশ্ব নেতার আসনে আসীন।

দিনটি উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী রাজধানীর ওয়ারীর নিজ বাসভবনে বিশেষ দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করেন। মহানগর ও থানা-ওয়ার্ড নেতারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

স্বেচ্ছাসেবক লীগ রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউর সংগঠন কার্যালয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করেছে। সংগঠনের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা মজিবুর রহমান স্বপন, দেবাশীষ বিশ্বাস, কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন, তারিক সাঈদ প্রমুখ।

ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগ রাজধানীর মিরপুর শাহ আলী মাজারে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেছে। উত্তর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, কেন্দ্রীয় উপ-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এনামুল ইসলাম মাসুদ, মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, কাজী জহিরুল ইসলাম মানিক, মজিবুর রহমান বাবুল, প্রকৌশলী মুক্তার হোসেন চৌধুরী কামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ হাইকোর্ট মাজার মসজিদে দোয়া মাহফিল ও দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেছে। দক্ষিণ যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইনুদ্দিন রানা ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

রাজধানীর বাড্ডায় মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করে মৎস্যজীবী লীগ। সংগঠনের সভাপতি সাইদুর রহমান সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক শেখ আজগর নস্কর এবং কার্যকরী সভাপতি সাইফুল ইসলাম মানিকসহ কেন্দ্রীয় নেতারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।