সোনার বাংলা গড়তে হলে বৈষ্যমহীন শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে

প্রকাশিত: ১২:০০ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০
বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ । এই দেশে প্রায় ৮০% লোক গ্রামে বসবাস কর। গ্রামে বসবাস করে কৃষক,কামার-কুমোর  , জেলে,মৎস্যজীবীসহ আরো অনেক পেশার লোক।   এই বিশাল জনগোষ্ঠী তথা দেশের উন্নতির হাতিয়ার হচ্ছে শিক্ষা। গ্রামের অনেকে তাদের সন্তানের সুশিক্ষার জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা পায় না। তার মূলকারণ হচ্ছে শিক্ষাব্যবস্থার উন্নতি।  ইতিমধ্যে বর্তমান   সরকারের দূরদর্শিতার ফলে গ্রামীণ শিক্ষাব্যবস্থা অনেক এগিয়েছে কিন্তু কাংখিত লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি। তার প্রধানকারণ হচ্ছে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগ,শিক্ষক সংকট,অভিভাবকদের অবহেলা ইত্যাদি । ইতিমধ্যে  NTRCA এর মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের ফলে ক্রমান্বয়ে যোগ্য শিক্ষক পাচ্ছে বিদ্যালয়গুলো।  ফলে ক্রমশ গ্রামীণশিক্ষাব্যবস্থার উন্নতি হচ্ছ বটে। কিন্তু উচ্চ শিক্ষিত যোগ্য শিক্ষক আর্থিক সচ্ছলতার কারণে গ্রামে নিয়োগ নিচ্ছে না, ফলে গ্রামীণ জনপদ দিন দিন পিছিয়ে পড়ছে। তাই অধিকাংশ জনগোষ্ঠীর কথা  বিবেচনা করে সরকারকে যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। শিক্ষকদের পর্যাপ্ত সুযোগসুবিধা বৃদ্ধি    করতে হবে।   তাহলে বাংলাদেশ তথ্যপ্রযুক্তির যুগে  পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে  চলতে পারবে এবং বাংলাদেশ সোনার বাংলাদেশে পরিণত হবে।

 মোঃ শাহাদাত হোসেন
নোয়াখালী