সিলেটে স্বামীর লিঙ্গ কেটে হত্যা, স্ত্রী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১১:১৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০২০

সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় গোপনাঙ্গ কর্তন করে স্বামীকে হত্যার পর পালিয়ে গিয়েও বাঁচতে পারেননি নিজাম আহমদের  স্ত্রী জেনি বেগম (৪০)। হাকালুকি হাওর থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়ার যুদিষ্টিপুর গ্রামের মধ্যপাড়ার আছাই মিয়ার মেয়ে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দক্ষিণ সুরমার পশ্চিম মমিনখলায় তালাবদ্ধ ঘরের ভেতর থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার ঘাড়ে কোপ রয়েছে এবং লিঙ্গ কর্তন করা হয়। নিজাম আহমদ (৪০) নামের ওই ব্যক্তি মমিনখলার আব্দুল গফফার হারুন মিয়ার বাসার ভাড়াটিয়া ছিলেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, বুধবার দিবাগত রাতে নিজাম আহমদ, তার স্ত্রী জেনি বেগম ও তাদের দুই বাচ্চা মমিনখলাস্থ বাসাতেই ছিলেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিবেশীরা ঘর তালাবদ্ধ দেখতে পান। বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় আশপাশের লোকজন পুলিশকে খবর দেন।

পরে সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি-দক্ষিণ) সুহেল রেজা, দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি আখতার হোসেনসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। তাঁরা তালা ভেঙে ঘরের ভেতর নিজাম আহমদের রক্তাক্ত লাশ দেখতে পান। তার ঘাড়ে দায়ের কোপ রয়েছে। এছাড়া তার লিঙ্গ কর্তন করা হয়েছে। পুলিশ দা উদ্ধার করেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ নিজামের মৃতদেহ উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। নিজাম আহমদ (৪০) নগরীর ছড়ারপারের মৃত আব্দুল মান্নানের ছেলে।

এদিকে, নিজাম আহমদের লাশ উদ্ধারের পর থেকে পলাতক ছিলেন স্ত্রী জেনি বেগম। তবে নাজিম হত্যার ৮ ঘন্টার মাথায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া পিপিএম এর নির্দেশনায়, মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি দক্ষিণ) সুহেল রেজার তত্বাবধানে ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মোখলেছুর রহমানের নেতৃত্বে এবং ওয়ারেন্ট অফিসার মনিরুজ্জামানসহ দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ জেনি বেগমকে হাকালুকি হাওর থেকে গ্রেফতার করে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার জ্যোতির্ময় সরকার পিপিএম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


Categories