“শোলাকিয়ায় নয় এক কাতার ফাঁক রেখে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে নামাজ পড়ার আহ্বান”

প্রকাশিত: ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০২০

শোলাকিয়ায় নয় এক কাতার ফাঁক রেখে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে নামাজ পড়ার আহ্বান।

করোনা পরিস্থিতির কারণে ঈদুল ফিতরের মতো এবারও কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহে ঈদ-উল-আযহা আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

২৭ জুলাই সোমবার বিকেলে শোলাকিয়া ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির অনলাইন জুম সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবদুল্লাহ আল মাসউদ, সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদির ভূইয়াসহ ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির সদস্যরা এতে অংশ নেন।

সভা শেষে ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, শোলাকিয়া ঈদগাহ ঈদের দিন বন্ধ থাকবে। সেইসঙ্গে ঈদগাহ সংলগ্ন মসজিদটিও বন্ধ থাকবে। শহরের শহীদী মসজিদ, পাগলা মসজিদসহ বিভিন্ন মসজিদে ঈদের এক বা একাধিক জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়, ঈদের দিন বাড়ি থেকে মুসল্লিরা নিজ দায়িত্বে জায়নামাজ ও টুপিসহ মাস্ক পরে মসজিদে নামাজ পড়তে যাবেন। এক কাতার ফাঁক রেখে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে নামাজ পড়ার আহ্বান জানানো হয়।

সভায় জানানো হয়, শহরের শহীদী মসজিদে সকাল ৮টা ও ৯টায় পর পর দুটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া পাগলা মসজিদে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।


Categories