শিবপুরে অবৈধ পশুর হাট নিয়ে বেপরোয়া ইউপি চেয়ারম্যান শোকজ নোটিশ

প্রকাশিত: ১১:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০২০

শিবপুর সংবাদদাতাঃ বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলায়ও এর ব্যতিক্রম নয়। শিবপুর উপজেলায় বর্তমানে ১৭৬ জন করোনা রোগী রয়েছে। সেই কারণে পূর্ব থেকে উপজেলা প্রশাসন সুনির্দিষ্ট স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণের শর্তে আসন্ন কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে মাত্র ৩টি বাজার অনুমোদন দেন। তারপরও বিভিন্ন স্বার্থ গোষ্ঠী ও তৃণমূল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরা শিবপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে স্বাস্থ্য বিধি না মেনে বাজার চালানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে এবং এর পিছনে বৃহৎ রাজনৈতিক ব্যক্তির মদদ রয়েছে বলে জানা যায়। অভিযোগ উঠেছে এই সমস্ত অবৈধ বাজার বসিয়ে অর্থ উপার্জনের জন্য একেবারে মরিয়া হয়ে লেগেছেন জয়নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাদিম সরকার। তিনি ২৭ জুলাই সোমবার জাল্লারা বাজারে অবৈধভাবে পশুর হাট বসান। নাদিম সরকার এর মদদে ২৮ জুলাই স্থানীয় মেম্বার এবং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি কর্তৃক আজকিতলা বাজারে পশুর হাট বসানো হয়। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসনের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পারভেজ মল্লিক ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে স্থানীয় ইউপি মেম্বারকে জরিমানা করলে তাকে মুচলেকা দিয়ে ছাড়িয়ে নেন নাদিম সরকার। এলাকাবাসীর অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যান নাদিম সরকার ২৯ জুলাই জয়নগর চৌরাস্তায় বিধি বহির্ভূতভাবে পুনরায় পশুর হাট বসান। যেখানে কোন প্রকার স্বাস্থ্যবিধি, মাস্ক পরিধান, জীবানুনাশক ঔষধ ছিটানো ও সামাজিক দূরত্বের কোন বালাই নেই। আরও জানা যায় আগামী ৩০ জুলাই পুনরায় জাল্লারা বাজারে তার নির্দেশেই পশুর হাট বসানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে ।

জনপ্রতিনিধি হয়েও ইউপি চেয়ারম্যান নাদিম সরকার সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অবৈধ হাট পরিচালনা করে জনগণকে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছেন যা সরকারের আইন পরিপন্থী। এ ব্যাপারে নাদিম সরকারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান তার ইউনিয়নে গরুর হাট বসানোর বিষয়ে তিনি কিছুই জানেননা। তবুও তাকে নরসিংদী জেলার স্হানীয় সরকার শোকজ করেছেন। এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।


Categories