বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণে সমস্যা কোথায়?

প্রকাশিত: ১২:০০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০
মো:বেল্লাল শিকদার,রাজাপুর,ঝালাকাঠি।        ইংরেজিতে একটি কথা আছে,”Education is  the backbone of a nation.”বাংলায় আর একটি কথা প্রচলিত আছে,-” শিক্ষক জাতি গঠনের কারিগর”।একথাগুলোর বাস্তবে রূপদান করতে হলে সরকারকে এর জন্য ইতিবাচক পদক্ষেপ নিতে হবে।কেননা প্রায় সাড় পাঁচলাখ বেসরকারি শিক্ষক ও কর্মচারিদের অর্ধাহারে ও অনাহারে রেখে কোন সুফল আশা করা যায়না।সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে সরকারি বেসরকারি-দের  মধ্যে এত তফাত কেন?বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় করণ করতে নাকি সরকারের অনেক অর্থের প্রয়োজন। বাস্তবে আসলে তা নয়।শুধু সরকারের উচ্চ মহলের  কতিপয় ব্যাক্তিদের আন্তরিকতার ঘাটতি আর লালফিতার দৌরাত্ব। বিশ্বের কোন দেশে আছে ১০০০ টাকা ও ৫০০ টাকা বাড়িভাড়া ও চিকিৎসা ভাতা?আমাদের দেশে যে এটা  বিদ্যমান আছে মাননীয়া প্রধান মন্ত্রী ও শিক্ষা মন্ত্রী মহোদয় নাকি সেটা জানেন না।বিভিন্ন পরিসংখ্যানে দেখা গেছে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয় করণ করলে দেশের একং জাতির বড় ধরণের লাভ।তাই আশা করি ভিশন ২০২১ বাস্তবায়ন তথা উন্নত দেশ  ও জাতি বিনির্মাণে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ এখন সময়ের দাবি।তাই মাননীয়া প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষা মন্ত্রী   মহোদয়ের কাছে  বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয় করণের পদক্ষেপ স্বনির্বদ্ধ অনুরোধ করছি।