“রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় ২য় দিনের মতো সাক্ষ্য দিচ্ছেন এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা”

প্রকাশিত: ৩:৩৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২০
জহিরুল হক, বরগুনা জেলা  প্রতিনিধিঃ

রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় ২য় দিনের মতো সাক্ষ্য দিচ্ছেন এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

বরগুনায় রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় ২য় দিনের মতো সাক্ষ্য দিচ্ছেন এ মামলার তদান্ত কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবির।
আলোচিত সেই রিফাত শরীফ হত্যা মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামীর বিরুদ্ধে শিশু আদালতে ২য় দিনের মতো এ সাক্ষ্য দিচ্ছেন তিনি।
আজ সোমবার (২৪ আগষ্ট) পূর্বের নির্ধারিত তারিখ অনিযায়ী সকাল ১০ টায় বরগুনার শিশু আদালতে এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমায়ূন কবিরের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন বিচারক মোঃ হাফিজুর রহমান।
করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের ফলে আদালত বন্ধ হয়ে যাওয়ার দীর্ঘ পাঁচ মাস পর এ মামলার ৭৬ তম ও শেষ সাক্ষী হিসেবে আদালতে সাক্ষ্য দিচ্ছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির। সাক্ষ্যগ্রহণ উপলক্ষে কারাগারে থাকা এ মামলার সাতজন আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ ছাড়াও আদালতে হাজির হয়েছেন এ মামলায় জামিনে থাকা অপর সাতজন অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আদালতে তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবিরের সাক্ষ্যগ্রহণ চলমান রয়েছে।
গত বছরের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করে বন্ড বাহিনী। পরে ওই বছরের ১ সেপ্টেম্বর বিকেলে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রাপ্তবয়স্ক ও অপ্রাপ্তবয়স্ক এই দুই ভাগে বিভক্ত করে দুটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। তদন্ত প্রতিবেদনে ১০ জন প্রাপ্তবয়স্ক আসামির পাশাপাশি ১৪ জন অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।
এ মামলার প্রাপ্ত বয়স্ক ১০ প্রাপ্তবয়স্ক আসামির বিরুদ্ধে ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার পর আগামী ২৬ আগস্ট যুক্তিতর্কের দিন ধার্য করেছে জেলা ও দায়রা জজ আদালত। অন্যদিকে অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে মামলার তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী কাল ২৪ আগস্ট ও পরের দিন ২৫ আগস্টও দিন ধার্য রয়েছে।
এব্যাপারর রিফাত হত্যা মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এ্যাড, এম মজিবুল হক কিসলু জানান, ১৪ আসামির মধ্যে রিশান ফরাজীসহ ১৩ আসামির বিরুদ্ধে হত্যাকান্ডে সরাসরি সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে চার্জ গঠন করেছেন আদালত। এছাড়াও অপর অপ্রাপ্তবয়স্ক আসামি আরিয়ান হোসেন শ্রাবণের বিরুদ্ধে হত্যাকান্ডের ষড়যন্ত্র, সহযোগিতা এবং আসামিদের পালাতে সহায়তার অভিযোগে চার্জ গঠন করা হয়েছে। গত ১৩ জানুয়ারি অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহন শুরু হয়।
 গত ১ জানুয়ারি এর আগেএ মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

Categories