“যানজটে নাকাল আখাউড়াবাসী”

প্রকাশিত: ১২:০০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
সৌমিত্র সাহা ,আখাউড়া উপজেলা প্রতিনিধি।

যানজটে নাকাল আখাউড়াবাসী।

দুপুর ১:১৭ মিনিট। তীব্র গরম । আখাউড়া পৌরসভার একমাএ ব্যস্ততম সড়ক সড়কবাজার। এই একটি মাএ সড়ক যেখান দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার পথযাএী চলাচল করে।
আখাউড়া স্টেশন থেকে শুরু করে এই রাস্তাটি বাংলাদেশের বৃহওম স্থলবন্দর দিয়ে আগরতলার সাথে সংযুক্ত হয়েছে। এই রাস্তা দিয়ে শত শত যাএী ভারতের আগরতলা হয়ে বিভিন্ন প্রদেশ যায়। তাছাড়া এই রাস্তাটি প্রশস্ততা এত কম যে, রাস্তার ফুটপাতের উপর বিভিন্ন দোকানপাট বসে ব্যবসা করে।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধি তাদের মোটরসাইকেল রাস্তায় রেখে যানজট তৈরি করে। সাধারণ জনগণ ও তাদের মোটরসাইকেল রেখে বাজার করে। তাছাড়া সিএনজি, অটোরিকশা, ব্যাটারি চালিত রিকশা করোনাকালীন সময়ে এতো বেড়ে গেছে, সেখান দিয়ে কোনো ব্যক্তি অসুস্থ হলে নেওয়া অসম্ভব হয়ে পড়ে।
এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন অসংখ্য যাএী সিএনজি করে ব্রাক্ষণবাড়িয়া যায়। একমাত্র রাস্তা দিয়ে বিভিন্ন এলাকার শত শত যাএী চলাচল করে। এখানে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ব্যাংক ও বীমা  প্রতিষ্ঠান  একটু অগ্রসর হলে পৌরসভার কার্যালয় অবস্থিত। তাছাড়া বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাএ- ছাএীর এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। ফলে যানজটের তীব্রতা বেড়েই চলছে।
পৌরসভা ও পুলিশ প্রশাসন বিভিন্ন  সময়ে  ফুটপাত  দখলমুক্ত  রাখতে পদক্ষেপ নিয়েছে। কয়েকদিন  যানজট   মুক্ত হলে আবারো ও ফুটপাত  দখল করে ব্যবসা শুরু  করে যানজটের মাএা বেড়েই চলছে।এতে সাধারণ  জনগণের অবস্থা  নাজুক  হয়ে পড়েছে। অতি  দ্রুত  রাস্তাটি যানজট মুক্ত করতে সাধারণ  পথচারী ও দোকানদার  অভিমত  তুলে ধরেন।

Categories