মামুলি লক্ষ্য তাড়া করেও জিততে পারেনি ইংলিশরা।

প্রকাশিত: ৯:১৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

মামুলি লক্ষ্য তাড়া করেও জিততে পারেনি ইংলিশরা।

প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড, দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তান। তৃতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ড, চতুর্থ ম্যাচে পাকিস্তান। প্রথম চার ম্যাচের ধারা মানলে পঞ্চম ম্যাচে জেতার কথা ইংল্যান্ডের। কিন্তু সরল ধারা মেনে কি আর ক্রিকেট চলে? ক্রিকেটের নিজস্ব ‘অননুমেয়’ চরিত্র আছে। আর দল হিসেবে পাকিস্তানের চেয়ে বড় অননুমেয় কে আছে ক্রিকেট বিশ্বে?

অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা পাকিস্তান পেসার আমির জামালের শেষ তিন বল থেকে ৮ রান দরকার ছিল ইংল্যান্ডের। স্ট্রাইকে ৪টি ছক্কা মেরে ফেলা মঈন আলী। কিন্তু ইংল্যান্ড অধিনায়ক আর শেষবেলায় পারলেন না।

আসলে পারতে দিলেন না জামাল, নাসিম শাহ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হলে যার হয়তো এদিন খেলাই হতো না। চতুর্থ বলটি ওয়াইড ইয়র্কার, পঞ্চম বলটিও তাই। কোনোমতে সিঙ্গেল নিতে পারলেন মঈন। শেষ বলে ডেভিড উইলিও নিতে পারলেন এক রানই। মাত্র ১৪৫ রানের পুঁজি নিয়েও পাকিস্তান জিতে গেল ৫ রানে।

৭ ম্যাচ সিরিজে পাকিস্তান এগিয়ে গেল ৩-২ ব্যবধানে।

পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার চলমান টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগের চার ম্যাচে রানের বন্যা বইয়েছে। দুটি ম্যাচেই ২০০ ওপরে রান হয়েছে। এর মধ্যে একবার ১৯৯ রান করেও জিততে পারেনি ইংলিশরা। সেদিক থেকে নিজেদের ভাগ্যবান মনে করতেই পারে বাবর আজমের দল। কারণ মামুলি পুঁজি নিয়ে এবার বাজিমাত করেছে স্বাগতিকরা।

pakistan team 4

সাত ম্যাচ সিরিজের পঞ্চম টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে ৬ রানে পরাজিত করেছে পাকিস্তান। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৯ ওভারে ১৪৫ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিক শিবির। জবাব দিতে নেমে ১৩৯ রানের বেশি করতে পারেনি মঈন আলি অ্যান্ড কোং। লো স্কোরিং ম্যাচে ফিফটি হাঁকিয়ে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন পাকিস্তানের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

ব্যতিক্রম ছিলেন কেবল মঈন। ৩৭ বলে অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংস খেলেন অধিনায়ক। এরপরও শেষ ১২ বলে ২৮ রানের সমীকরণ মেলাতে ব্যর্থ হয়েছে অতিথিরা। শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ১৫ রান। অভিষিক্ত আমির জামালের করা সে ওভার থেকে ৯ রান নিতে পেরেছে ইংল্যান্ড।

 


Categories