মান্দায় গৃহবধূকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা

প্রকাশিত: ৭:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২১
স্টাফ রিপোর্টারঃ নওগাঁর মান্দায় আয়েশা আক্তার (১৮) নামের এক গৃহবধূকে হত্যা করে ঘরের তীরের সাথে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগে গৃহবধূর স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের বাবা আশরাফুল ইসলাম। এ ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়েছে স্বামী সবুজ হোসেন। নিহত গৃহবধূ  উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামের সবুজ হোসেনের স্ত্রী ও রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার সোনাডাঙ্গা গ্রামের আশরাফুল ইসলামের মেয়ে।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দাসপাড়া গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে সবুজ হোসেনের সাথে প্রায় এক বছর আগে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার সোনাডাঙ্গা গ্রামের আশরাফুল ইসলামের মেয়ে আয়েশা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক দ্বন্দ্ব কলহ লেগে ছিল। পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্ত্রী আয়েশা আক্তারকে নির্যাতন করতেন স্বামী সুবজ হোসেন।
নিহতের বাবা আশরাফুল ইসলাম বলেন, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমার মেয়েকে নির্যাতন করে আসছিল। এসবের জের ধরেই মেয়েকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
সত্যতা নিশ্চিত করে মান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুর রহমান শাহিন বলেন, ঘরের তীরের সাথে ফাঁস দেয়া অবস্থায় গৃহবধূ আয়েশা আক্তারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সুরুতহাল প্রতিবেদন তৈরিসহ ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আশরাফুল ইসলাম বাদী হয়ে শনিবার বিকেলে জামাই সবুজ হোসেনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছে। আসামী পলাতক থাকায় তাকে আটক করা যায়নি তবে আটকের চেষ্টা চলছে।

Categories