“বৈঠা বা লগি দিয়ে বেয়ে চলা সাধারণ কোনো ভেলা নয়-এটি ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা”

প্রকাশিত: ৯:৪২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০

নিজেদের তৈরি ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন রুস্তম আলী ও সেন্টু মিয়া

বৈঠা বা লগি দিয়ে বেয়ে চলা সাধারণ কোনো ভেলা নয়-এটি ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা।

বারনই নদী, বন্যার পানিতে গোটা নদীই এখন পানিতে টইটুম্বুর। এরই মধ্যে কলা গাছের ভেলা নিয়ে দ্রুতগতিতে এদিক-ওদিক ঘুরে বেড়াচ্ছেন দুই যুবক। তবে এটি বৈঠা বা লগি দিয়ে বেয়ে চলা সাধারণ কোনো ভেলা নয়। এটি ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা। সম্প্রতি এমন ভেলা দেখা গেছে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায়।

banana raft with engineনিজেদের তৈরি ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন রুস্তম আলী ও সেন্টু মিয়া

বন্যার সময় চলাচলের জন্য এ অভিনব নৌযান তৈরি করেছেন নলডাঙ্গা পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের হলুদঘর মহল্লার বাসিন্দা রুস্তম আলী (২৬) ও সেন্টু মিয়া (২৪)। তাদের এই আবিষ্কার দেখে উল্লাসিত এলাকার বাসিন্দারাও।

এ অভিনব ভেলা আবিষ্কারের বিষয়ে রুস্তম ও সেন্টু জানান, সাধারণত ইঞ্জিনচালিত নৌকাগুলোতে শ্যালো মেশিন ব্যবহার করা হয়। সেখান থেকেই তাদের মাথায় ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা তৈরির পরিকল্পনা আসে। আর যেমন পরিকল্পন তেমন কাজ। তারা বানিয়ে ফেলেন ইঞ্জিনচালিত ভেলা।

কিছু কলাগাছ কেটে প্রথমে তৈরি করে ফেলেন একটি ভেলা। তারপর এতে যুক্ত করে দেন সেচ কাজে ব্যবহৃত শ্যালো মেশিন। ব্যাস, তৈরি হয়ে যায় তাদের ইঞ্জিনচালিত ভেলা। এরপর থেকে এটি নিয়েই চলাচল করছেন তারা।

এই দুই যুবক আরো জানান, ভবিষ্যতে আরো বড় আকারের ইঞ্জিনচালিত কলা গাছের ভেলা তৈরি করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। উৎস-24newspaperlive.


Categories