মাধ্যমিক পর্যায়ের ইংরেজি মাধ্যম ও ভার্সনসহ সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শপথবাক্য পাঠ করতে হবে।

প্রকাশিত: ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩০, ২০২১

মাধ্যমিক পর্যায়ের ইংরেজি মাধ্যম ও ভার্সনসহ সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শপথবাক্য পাঠ করতে হবে।

দেশে বিদেশি কারিকুলামে পরিচালিত মাধ্যমিক পর্যায়ের ইংরেজি মাধ্যম ও ভার্সনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ক্লাস শুরুর আগে জাতীয় সঙ্গীতের পর পাঠ করতে হবে শপথবাক্য। এ ব্যাপারে সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে জরুরি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ শপথবাক্য পাঠ করার ব্যবস্থা করার কথা বলা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করে বলা হয়েছে, প্রতিদিন সমাবেশের আগে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের পর ইংরেজি মাধ্যম ও ভার্সনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শপথবাক্য পাঠ করতে হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, জাতীয় সঙ্গীতের পর সবাইকে বলতে হবে—

“জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তানি শাসকদের শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে এক রক্তক্ষয়ী মুক্তিসংগ্রামের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। বিশ্বের বুকে বাঙালি জাতি প্রতিষ্ঠা করেছে তার স্বতন্ত্র জাতিসত্তা।

আমি দৃপ্তকণ্ঠে শপথ করছি যে, ‘শহীদদের রক্ত বৃথা যেতে দেব না। দেশকে ভালোবাসব, দেশের মানুষের সার্বিক কল্যাণে সর্বশক্তি নিয়োগ করব। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শে উন্নত, সমৃদ্ধ এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলা গড়ে তুলব।

মহান সৃষ্টিকর্তা আমাকে শক্তি দিন।’


Categories