” বাবা তোমায় মনে পড়ে ” মোঃ শাহাদাত হোসেন সেলিম

প্রকাশিত: ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৭, ২০২০

মাতৃস্নেহের যেমন তুলনা নাই পিতৃস্নেহের তুলনা ও নাই । জন্মলগ্ন থেকে একজন মাতা পরমস্নেহে তার সন্তানকে লালন পালন করে বটে কিন্তু পিতার মায়া মমতা ও কোনো অংশে কম নয়। কর্মক্ষেত্রে একজন বাবা নিজে না খেয়ে তার সন্তান ও পরিবারকে সুন্দরও সুখী করার জন্য সর্বদা সচেষ্ট থাকে। বাবা সবসময় বটবৃক্ষের মতো পরিবারকে সহায়তা প্রদান করেন। আমি আমার বাবাকে হারিয়েছি ২০১৬ইং সনের ২১শে জানুয়ারী। কিন্তু বাবাকে স্মরণ করতে চেষ্টা করি সর্বদাই।

প্রতিদিন প্রতিক্ষণে,

বাবা তোমায় মনে পড়ে।

সকাল-বিকাল রাত্র কালে,

বাবা তোমায় মনে পড়ে।

প্রার্থনা করি আল্লাহর কাছে,

পরকালে ক্ষমা করিও মোর বাবাকে।

ইহকালে বাবা যতন করেছিল কত,

পরকালে উচ্চ মোকাম দিও আপনি তত।

বাবা তোমায় মনে পড়ে।

পরিশেষে এ কথাই বলতে চাই, বাবা যখন হারিয়ে যাবে বুঝা যায় বাবার শূন্যস্থান অপূরনীয়। তাই যাদেরই মা- বাবা আছে তাদের কাছে অনুরোধ করছি, একটি নিদিষ্ট দিনে নয় সর্বদাই মা-বাবার সেবাযত্ন করি। সর্বদাই আল্লাহর দরবারে শোকর আদায় করি । কারন পৃথিবীতে মাতা পিতা হচ্ছে সন্তানের জন্য সবচেয়ে বড় নিয়ামত। যা হারিয়ে গেলে আর ফিরে পাওয়া যাবে না।
লেখক
মোঃ শাহাদাত হোসেন সেলিম
চাষিরহাট, সোনাইমুড়ী, নোয়াখালী।