বাঘাইছড়িতে উপজাতি সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলিতে ২ জন নিহত

প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০২১

নুরুল কবির আরমান, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী উপজেলা বাঘাইছড়িতে উপজাতি সন্ত্রাসীদের গ্রুপের মধ্যে গোলগুলিতে দুইজন নিহত হয়েছেন।

উপজেলার দুইকিলো এলাকায় বুধবার (২৯ডিসেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত হয়েছেন আরও একজন।

বাঘাইছড়ি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন,জেএসএস সন্তু লারমা গ্রুপ কমান্ডার তুজিম চাকমা (৩৫) ও ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) দলের বাঘাইছড়ির পরিচালক জেনন চাকমা (৩০)। আহত ব্যক্তির নাম মনির হোসেন (২৫)।তিনি পায়ে গুলি বৃদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। তাকে বাঘাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা ভর্তি করা হয়েছে।

বাঘাইছড়ি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আহসান বলেন, ‘দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আরেকটি মরদেহ খোঁজা হচ্ছে।’

তিনি জানান, নিহতদের একজন সন্তু লার্মা নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতির, অপরজন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) অনুসারী।

স্থানীয়রা জানায়, ইউপিডিএফ এর নিয়ন্ত্রিত এলাকায় একটি দোকানে অবস্থান থাকাকালীন সময়ে সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির ( জেএসএস) গ্রুপ এসে তাদের ওপর গুলি চালায়। পরে উভয়ের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে।

বাঘাইছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস এমএম লারমা-সংস্কারবাদী) দলের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক সুদর্শন চাকমা বলেন, ‘জেএসএস মূলদল ইউপিএফের নিয়ন্ত্রিত এলাকা দখলের কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলি হয়েছে। মূলত আধিপত্য বিস্তারের জন্য ঘটনার সূত্রপাত’।


Categories