বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরামের প্রেস বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত: ৫:২৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০২১

বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরামের এডহক কমিটির সদস্য সচিব জহিরুল ইসলাম  প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তি হুবুহু তুলে ধরা হল ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

আসসালাসু আলাইকুম , প্রিয় এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি , বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল , প্রিন্ট , ইলে্ক্ট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিক ও সম্পাদকবৃন্দ সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ।

আপনারা জানেন বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরাম ২০১৭ সালে গঠিত হবার পর থেকে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারিদের বৈষম্য নিয়ে রাজপথে আন্দোলনের পাশাপাশি সরকারের উচ্চমহলে আলোচনা করে আসছে । ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাসে বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরাম এর নেতৃত্বে ছয়টি সংগঠন ১৯ দিন অবস্থান ও অনশন কর্মসুচী এর মাধ্যমে বেশাখী ভাতা ও ৫% বার্ষিক প্রবৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি আদায় করে ।পরবর্তীতে সরকারের উচ্চমহলের সাথে আলোচনার মাধ্যমে বাস্তবায়িত হয় । বেসরকারি এমপিওভূক্ত শিক্ষক কর্মচারীদের এই বিশাল অর্জনে আপনাদের ভূমিকা ছিল সবচেয়ে বেশী । সংগঠনগুলি শুধু কর্মসুচী ঘোষনা করেছিল কিন্তু তা বাস্তবায়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেছিলেন এমপিও ভুক্ত বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারী , বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল , প্রিন্ট , ইলে্ক্ট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিক ও সম্পাদকবৃন্দ । বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরাম এর এমপিওভুক্ত শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণ মূল লক্ষ্য থাকলেও আপনাদের সহযোগিতায় বৈষম্যগুলি কমিয়ে জাতীয়করণের দুয়ারে চলে যেতে চায় ।  সেই উদ্দেশ্যে কাজ যাচ্ছেন সংগঠনের নেতা কর্মীরা । আপনারা জানেন কিছু কিছু শিক্ষক নেতা আছেন যারা শিক্ষকদের সেন্টিমেন্টকে পুঁজি করে আজীবন নেতৃত্বে থাকতে আগ্রহী । গত বছরের এপ্রিলে বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরামের কেন্দ্রিয় কমিটির মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার পর করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে কমিটির মেয়াদ ১ বছর বর্ধিত করা হয় । পরবর্তীতে এক বছর পূর্ণ হওয়ার পর গঠনতন্ত্রের পৃষ্ঠা-১৩ এর “ ট ” অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কেন্দ্রিয় কমিটি বিলুপ্ত করে বিপ্লব কান্তি দাসকে আহবায়ক ও জহিরুল ইসলামকে সদস্য সচিব করে সাত সদস্যের এডহক কমিটি ঘোষনা করে ।

নিয়ম অনুষায়ী এডহক কমিটি ১২ মার্চ – ২০২১ কেন্দ্রিয় ত্রিবার্ষিক সম্মেলন এর আয়োজন করে । কিন্তু এই দিন কতিপয় বহিরাগত যারা শিক্ষকদের মাথা বিক্রি করে নেতৃত্ব ধরে রাখতে চায় তাদের উস্কানিতে সম্মেলনে হামলা চালায় ফলশ্রুতিতে কমিটির আহবায়ক সম্মেলন স্থগিত করে যা বিভিন্ন পোর্টাল, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রিক মিডিয়ায় প্রকাশিত হয় । পরবর্তীতে এডহক কমিটি সম্মেলন সুষ্ঠুভাবে সফল করতে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করে । কমিটিতে ভেঙ্গে দেয়া কেন্দ্রিয় কমিটি ছাড়াও জেলা , উপজেলা কমিটি ও সাধারণ শিক্ষক কর্মচারীদের মধ্যে থেকে সদস্য অন্তর্ভূক্ত করা হয় । সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে দ্রুততম সময়ে সম্মেলন করতে কাজ করে যাচ্ছে শীগ্রই  সম্মেলনের  তারিখ ঘোষনা করবে । কিন্তু দুঃখের বিষয় ভেঙ্গে দেয়া কেন্দ্রিয়  কমিটির অনেক নেতা কর্মীকে বারবার মৌখিক ও লিখিত অনুরোধ করা সত্ত্বেও তাদের পূর্ববর্তী পদপদবী ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট দিচ্ছেন । এতে করে  সম্মেলন  প্রস্তুতি কমিটির কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে । তাছাড়া বিভিন্ন নিউজ পোর্টাল গুলি তাদের পদবী ব্যবহার করে নিবন্ধ চাপছেন যা কোনভাবেই কাম্য নয় । আশাকরি ভবিষ্যতে নেতৃবৃন্দের পদ পদবী ব্যবহারে পোর্টালের সম্পাদকবৃন্দ সচেতনতার পরিচয় দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করবেন। যে সকল নেতা কর্মী পূর্ববর্তী পদপদবী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যবহার করছেন তাদেরকে পূর্ববর্তী পদপদবী ব্যবহারে সংযত হওয়ার অনুরোধ করছি । বাংলাদেশ বেসরকরি শিক্ষক কর্মচারি ফোরামের অফিসিয়াল ফেইজবুক গ্রুপ “ বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরাম (বাবেশিকফো) ” ।

এই গ্রুপে আপনি বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরামের বস্তুনিষ্ঠ তত্ব জানতে ও জানাতে পারবেন ।

 

ধন্যবাদান্তে ,

জহিরুল ইসলাম

সদস্য সচিব

এডহক কমিটি

বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারি ফোরাম (বাবেশিকফো)