বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে কর্মসূচি

প্রকাশিত: ৭:১১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২০

বরিশাল সরকারি কলেজকে মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে নামকরণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। অপরদিকে কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছে অপরপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার টাউন হল চত্বরে সরকারি বরিশাল কলেজকে “মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্ত নামে নামকরণ বাস্তবায়ন কমিটি এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

কমিটির আহ্বায়ক মানবেন্দ্র বটব্যাল এ দাবির সাথে জনসাধারণকে সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। অপরদিকে সরকারি বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে কলেজের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেন। টাউন হলের সামনে সদর রোডে গণস্বাক্ষর গ্রহণ করা হয়।

গত ২৯ জুন শিক্ষামন্ত্রণালয় সরকারি বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন করে ‘মহাত্মা অশ্বিনী কুমার সরকারি কলেজ বরিশাল’ নামকরণের যৌক্তিকতা উল্লেখপূর্বক সুপারিশসহ মতামত প্রেরণের জন্য শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান বরাবরে চিঠি প্রেরণ করে। এরপরই পক্ষে-বিপক্ষে আন্দোলন শুরু হয়েছে।

নগরীর কালীবাড়ি রোডে বিএম স্কুলের একটি ভবনে ১৯৬৩ সালের ২ সেপ্টেম্বর যাত্রা শুরু হয় বরিশাল নাইট কলেজের। ১৯৬৬ সালে একই রোডে অশ্বিনী কুমার দত্তের বাসভবনে ওই কলেজটি স্থানান্তরিত হয়। ১৯৭০ সালে দিবা শাখা শুরু হয়।

১৯৮৬ সালে কলেজটি জাতীয়করণ হয় তখন বরিশাল নাইট কলেজের পরিবর্তে সরকারি বরিশাল কলেজ নামকরণ করা হয়। আর বন্ধ হয় নৈশ শাখা। অশ্বিনী কুমারের বাড়িতে এই কলেজ চালু করায় বরিশালের একটি পক্ষ অশ্বিনী কুমারের নামে কলেজের নাম করার দাবি করে আসছে।