বদলির বিরোধিতা নয়, বাস্তবায়নে প্রয়োজন ঐক্যবদ্ধ হওয়া। (বাবেশিস)

প্রকাশিত: ১০:১১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০২১
প্রতিটি পেশায় আছে বদলি শুধু বদলি নেই বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষা ব্যবস্থায়। যে  প্রতিষ্ঠানে যোগদান এবং ঐ প্রতিষ্ঠান থেকে অবসরপ্রাপ্ত। একঘেয়েমি জীবন কাকে বলে তা বুঝা যায় বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। বন্দী দশার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত করতে হয় চাকরি জীবন।
আমাদের জীবনকে বন্দী দশা থেকে মুক্ত করতে বদলি প্রথা দ্রুত বাস্তবায়ন অতীব জরুরি। বদলি প্রথা বাস্তবায়ন করতে হলে চুপচাপ বসে থাকলে চলবে না। এর জন্য কঠোর সাধনা প্রয়োজন। শুধু আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বদলি প্রথা চালু হতে বছরের পর বছর লেগে যেতে পারে। কিন্তু আমরা যদি সুসংগঠিত হয়ে আমাদের দাবি আদায়ের পক্ষে এগিয়ে যাই তাহলে দ্রুত বাস্তবায়ন হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আসুন আমরা এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে দাবি আদায়ে এগিয়ে যাই স্বপ্ন পূরণে। আমি এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির সাথে ছিলাম এবং আছি। আমাদের উচিত সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে বদলি প্রথা বাস্তবায়ন করার জন্য একে অপরকে সহযোগিতা করা । বদলি প্রথা বাস্তবায়নের জন্য সকলকে কাজ করতে হবে দৃঢ়মনোবল নিয়ে। যতদিন পর্যন্ত বদলি প্রথা বাস্তবায়ন করা না হচ্ছে ততদিন পর্যন্ত সকলকে সুসংগঠিত হয়ে কাজ করে যেতে হবে। কেউ কাউকে দাবি আদায় করে দিবেন না। নিজেকেই নিজের অধিকার আদায় করতে হবে। আমরা যদি মনে করি বদলি বাস্তবায়ন কমিটি কাজ করছে আমাদের কাজ করার প্রয়োজন নেই তাহলে সেটা হবে মারাত্মক ভুল। কারণ কারোর একার পক্ষে দাবি আদায় করা সম্ভব নয়। দাবি আদায় করতে হলে সকলের সহযোগিতা একান্ত কাম্য। এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির প্রতিটি নেতৃবৃন্দ কাজ করে যাচ্ছে যত দ্রুত সম্ভব বদলি প্রথা বাস্তবায়ন করার জন্য।
আসুন আমরা এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বদলি বাস্তবায়ন কমিটির সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করি বদলি প্রথা বাস্তবায়নে।
ধন্যবাদান্তে
মোঃ আবুল হোসেন
মহাসচিব
বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক সমিতি
কেন্দ্রীয় কমিটি

Categories