বগুড়ার ২০ হাজারের বেশি শিক্ষক -কর্মচারীর মানবেতর জীবন যাপন

প্রকাশিত: ১০:৩৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০২০

নূরুল ইসলাম, বগুড়া:

করোনা পরিস্থিতিতে উত্তর জনপদের প্রাণকেন্দ্র বগুড়ার ১২ টি উপজেলার বেসরকারী স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক কর্মচারীরা ভালো নেই। স্কুল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বেতন ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন বগুড়ার এসব শিক্ষক। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, জেলার এক হাজার কিন্ডারগার্টেন স্কুল ,বিপুলসংখ্যক কোচিং সেন্টার মিলিয়ে ২০ সহস্রাধিক শিক্ষক-কর্মচারী রয়েছে। গত ১৮ মার্চ থেকে ৩ মাস ধরে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষক কর্মচারীরা এক দিকে বেতন ভাতা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন, অন্য দিকে না পারছেন কারো কাছে হাত পাততে, না পারছেন অন্য কোন কাজ করতে। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কিন্ডারগার্টেন ও বিপুল সংখ্যক কোচিং সেন্টারের শিক্ষক কর্মচারীর আয়ের প্রধান উৎস শিক্ষার্থীর বেতন ও পরীক্ষার ফি। প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ থাকায় বন্ধ রয়েছে টিউশন ফি আদায়। ফলে শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে। করোনার মহামারিতে সবচেয়ে বেশি সমস্যার সম্মুখীন পড়েছেন, যারা ছাত্র জীবন শেষ করে প্রাইভেট টিচিং দিচ্ছেন এমন যুকক-যুবতীরা। আর্থিক সংকটে পড়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে হচ্ছে তাদের। তারা তাকিয়ে আছে কবে করোনা মুক্ত হবে, কবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে, দেশের মানুষ স্বাভাবিক চলাচল করতে পারবে ।


Categories