নীলকুঠি -সাপমারা সড়কের বেহাল দশা, দেখার কেউ নেই

প্রকাশিত: ১:৫২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০
এ.কে.এম সেলিম, নরসিংদী প্রতিনিধি।
 নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার পূর্বাঞ্চল। মাত্র ৬ কি.মি. সড়ক। কিন্তু যোগাযোগ লক্ষাধিক মানুষের।ঢাকা – সিলেট মহাসড়কের নীলকুঠি বাসস্ট্যান্ড হতে এ সড়কটি সাপমারা হয়ে আলগী বাজার পর্যন্ত গিয়েছে।সাপমারা থেকে আবার তা রায়পুরা ও গৌরীপুর যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা। এ সড়ক দিয়ে মির্জাপু, মুছাপুর, মহেশপুর ও আলগীর পর মেঘনা পার হয়ে মাঝের চরের লোকজনের যাতায়াত। প্রতিদিন যাত্রী যাতায়াতের পাশাপাশি হাজারও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পণ্য পরিবহনের একমাত্র সড়ক এটি। অথচ এমন গুরুত্বপূর্ণ সড়কেরও বেহাল দশা আজ কয়েক বছর যাবৎ।সাপমারা থেকে আলগী ও গৌরীপুর পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার করা হলেও থেমে আছে রায়পুরা পূর্বাঞ্চলের প্রবেশপথ হিসেবে পরিচিত নীলকুঠি থেকে সাপমারা পর্যন্ত ৬ কি.মি. রাস্তার সংস্কার কাজ।
রাস্তা ভেঙে খানা খন্দে পরিনত হয়েছে। একটু বৃষ্টি হলে রাস্তা না পুকুর তা বুঝা মুশকিল। প্রতিদিনই কোন না কোন গাড়ি দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। এলাকায় প্রাইভেটকার গাড়ি ঢুকতে পারে না নীলকুঠি বাজার সড়কের গর্তের কারণে। বৃষ্টিতে রাস্তায় কোথাও কোথাও হাটু পানি জমে থাকে। ফলে ছোট প্রাইভেট কার ও সিএনজি র সিলিন্ডারে পানি ঢুকে গাড়ি নষ্ট হওয়ার ঘটনা এ সড়কের নিয়মিত ঘটনা। প্রায়ই রিকশা, অটো রিকশা ও মালবাহী ভ্যান গর্তে পরে চাকা ভাঙ্গার অভযোগ শোনা যায়।
এলাকাবাসীর দাবী নীলকুঠি হতে সাপমারা পর্যন্ত মাত্র ৬ কি.মি. রাস্তা অতিদ্রুত সংস্কার করা হোক। তার মধ্যে সড়কের নীলকুঠি বাজারের অংশটি পিচের পরিবর্তে কংক্রিটের মাধ্যমে ঢালাই সড়কের ব্যবস্থা করতে হবে।

Categories