নাসিরনগরে ২য় পর্যায়ে  ভূমিহীন-গৃহহীনদের জমি ও গৃহনির্মাণের  নতুন স্থান পরিদর্শন।

প্রকাশিত: ১০:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০২১
আসমত আলী,নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ

নাসিরনগরে ২য় পর্যায়ে  ভূমিহীন-গৃহহীনদের জমি ও গৃহনির্মাণের  নতুন স্থান পরিদর্শন। 

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৫৩,৩৪০ টি ভূমিহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ  প্রদান কার্যক্রম (দ্বিতীয় পর্যায়) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুভ উদ্বোধন করার পর নাসিরনগরে আবারও নতুন করে গৃহ নির্মাণ করার স্থান পরিদর্শন করেন  উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহম্মদ ও উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি মোঃ মেহেদী হাসান খান শাওন।
আজ ৩১ জুলাই শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া -১ (সাংসদ) বদরুদ্দোজা মোহাম্মদ ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এম পি মহোদয় এর নির্দেশনায়  নাসিরনগর  উপজেলায় নতুন করে আবারও ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ নির্মাণ করার বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন,নাসিরনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহম্মদ ও উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি মোঃ মেহেদী হাসান খান শাওন।
পরিদর্শনের সময় সাথে ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু সাঈদ তারেক, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শুভ্র সরকার, থানা অফিসার ইনচার্জ হাবিবুল্লাহ সরকার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম, সমাজ সেবা কর্মকর্তা আবুল খায়ের, আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান, প্রেস ক্লাব সভাপতি সুজিত কুমার চক্রবর্তী, ভলাকুট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রুবেল মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা কার্তিক চন্দ্র দাস,  বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা/ কর্মচারী, সংশ্লিষ্ট তহশিলদারগণসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিগণ।
পরিদর্শনের স্থান গুলো হল, কুন্ডা ইউনিয়নের রানিয়াচং ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত প্রায় ২০ একর জায়গা , ভলাকুট ইউনিয়নের খাগালিয়া পুরাতন বাজার ৯৬ শতক,  নতুন বাজার সংলগ্ন মাঠ ২ একর ৪৪ শতক জায়গা। উক্ত স্থানগুলোতে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে গৃহ নির্মাণ করা হলে নাসিরনগর উপজেলায় শত শত পরিবার আশ্রয় পাবেন ৷
উল্লেখ্য, কুন্ডা রানিয়াচং ২০ গৃহহীন পরিবারের আশ্রয়ন প্রকল্পের কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় ৮ পরিবারকে গৃহে পাওয়া যায় নাই, সেই গৃহগুলো তালাবদ্ধ রয়েছে। প্রতিবেশী জানায়, যাদের নামে গৃহ বরাদ্ধ করা হয়েছে তারা সেই গৃহে থাকে না, তাদের নিজস্ব বাড়ি রয়েছে। এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন।

Categories