“নবীনগরে মসজিদে তবারক (জিলাপি) বিতরণ নিয়ে খুন!”

প্রকাশিত: ১:৫২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৬, ২০২০

নবীনগর,  ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে কাজী আব্দুল হামিম রিপন।

শুক্রবার আহাম্মেদপুর সরকার বাড়ি জামে মসজিদে জুম্মার নামাজের পর তাবারক (জিলাপি) বিতরণের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মোঃ হেবজু মিয়া সরকার (৫৫), পিতা মনির হুসেন সরকার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা নবীনগর উপজেলার লাউরফতেহপুর ইউনিয়নের আহম্মেদপুর গ্রামে জুম্মার নামাজের পর জিলাপি বিতরণ নিয়ে চাচাতো ভাইয়ের উপর্যুপরি কিলঘুষির আঘাতে মারা গেলেন বড় ভাই।

স্থানীয়রা জানায়, একই সমাজের বাসিন্দা (গোষ্ঠির) নিহতের চাচা আমির হোসেন সরকারের ছেলে মামুন সরকার (৩৫) এর সাথে জুম্মার নামাজের সময় তাবারক বিতরণ নিয়ে চাচাতো বড় ভাই হেবজু মিয়ার সাথে গালমন্দ ও তর্কাতর্কি হয়।

তারই সুত্র ধরে কিছুক্ষণ পরেই মামুন সরকার বড় ভাইয়ের (চাচাতো) বাড়িতে হামলা চালিয়ে কিল ঘুষি মারলে ঘটনাস্থলেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে হেবজু মিয়া মারা যায়।

পরে স্থানীয়রা হেবজু মিয়াকে দ্রুত নবীনগর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কতর্ব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে। এই বিষয়ে কতর্ব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মো. ইফতিয়ার উদ্দিন বলেন, হাসপাতালে তাকে মৃত অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছে। আমাদের ধারণা ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মোঃ মকবুল হোসেন বলেন, সন্ধ্যায় লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, প্রাথমিক তদন্তে আমরা জানতে পেরেছি নিহত হেবজু মিয়াকে মাথায় লাঠির আঘাত করা হয়েছে, মামলার প্রস্তুতি চলছে।


Categories