“নওগাঁয় ১৪০ টি আম গাছ নিধন করলো দুর্বৃত্তরা!”

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০২০
অহিদুল ইসলাম, নওগাঁঃ

নওগাঁয়  জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধে পাঠার বলি হলেন এক নারীর রোপনকৃত ১৪০ টি আম গাছ।

গতকাল শনিবার (১ আগষ্ট) নওগাঁর সাপাহার উপজেলায় ভাবুক গ্রামে ঈদের দিন দিবাগত রাতে এ অমানবিক আম গাছ কর্তনের ঘটনাটি ঘটেছে ।
জানা গেছে, সাপাহার উপজেলার ছাতাহার গ্রামের মৃত কমির উদ্দীনের ছেলে নাজিমুদ্দীন তার স্ত্রীর অংশ হিসেবে ভাবুক গ্রামে ১৪ শতাংশ জায়গা পান। সেই জায়গাটি ১৪০টি আমরুপালী জাতের আমগাছ রোপন করেন বেশ কিছুদিন পূর্বে।
ঐ জায়গা নিয়ে প্রতিপক্ষের সাথে দ্বন্দ্ব চলছিলো । এরি মাঝে ঈদের দিন ১ আগষ্ট শনিবার দিনগত রাতের আঁঁধারে কোন এক সময় ঐ জমিতে রোপন কৃত ১৪০ টি আম গাছ সম্পূর্ন কেটে ফেলে রেখে যান।
আজ রবিবার সকালে গ্রামের লোকজন বাগানের সম্পূর্ন গাছ কাটা ও পড়ে থাকতে দেখে বাগান মালিককে খবর দেন। খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে বাগানে এসে এমন অমানবিক দৃশ্য দেখে দিশেহারা হয়ে পড়েন। গাছগুলো সব কেটে ফেলার কারনে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলেই বাগানের মালিক ঐ নারীর পক্ষের লোকজনরা জানিয়েছেন এবং তারা বলেছেন যে, জায়গা নিয়ে  দ্বন্দ্ব চলছিলো সম্ভাব্য সেই দ্বন্দ্বের কারনেই প্রতিপক্ষের লোকজন এমন নিষ্ঠুর ও অমানবিক কাজ করে থাকতে পারে।
তবে- যারাই বাগানটি বা আমের গাছগুলো কেটে নষ্ট করুক না কেন। কাজটি খুবই নিষ্ঠুর ও অমানবিক বলেই মতামত ব্যক্ত করেছেন সচেতন মহল।

Categories