ডা. আবু সাঈদ’র মহানুভবতা : পি সি আর মেশিন পাচ্ছে জেলা সদর হাসপাতাল।

প্রকাশিত: ৯:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০২০

মো.অাশরাফুল লতিফ (তুহিন), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ::

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মেডিকেল এসোসিয়েশন (বি এম এ)এর সাধারন সম্পাদক, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ), ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সভাপতি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান ডা.আবু সাঈদ সরকারের কাছে আবেদন করেছেন, তিনি একটি পি.সি.আর মেশিন জেলা সদর হাসপাতালে অনুদান হিসেবে দিতে চান।

আজ ২৫/০৬/২০২০ তারিখ দুপুরে তিনি একটি লিখিত আবেদন সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা.মোঃ শওকত হোসেনের কাছে হস্তান্তর করেছেন। আবেদন পত্রে তিনি সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. শওকতকে অনুরোধ জানিয়ে এজন্য প্রয়োজনীয় দাপ্তরিক প্রক্রিয়া বাস্তবায়নের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

ডা. আবু সাঈদ তার অনুরোধ পত্রে উল্লেখ করেন যে, ডা. শওকত হোসেন যেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর -৩ অাসনের সংসদ সদস্য, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রনালয়ের মাননীয় সভাপতি ও জেলা স্বাস্হ কমিটির সভাপতি জনাব র. আ. ম. উবায়দুল মুক্তাদির চৌধুরী এম পি মহোদয় এবং জেলা করোনা সংক্রমন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক জনাব মো. হায়াত- উদ- দৌলা খাঁন মহোদয়গণের সাথে আলোচনা করে পি সি অার ল্যাব স্হাপনের কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার করোনা প্রতিরোধে ঐতিহাসিক ভূমিকা রাখবেন।

ডা.আবু সাঈদ স্যারে পি সি অার মেশিন দান করা প্রসঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের গাইনী বিভাগের কনসালটেন্ট ও জেলা স্বাচিপ ও বি এম এ ‘র সদস্য ডা. ফৌজিয়া আখতার জানান, “করোনা মহামারীর দুঃসময়ে ডা. অাবু সাইদ স্যারের কোটি টাকা মূল্যের পি সি অার মেশিন দান করার প্রস্তাবটি সত্যিই একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। তিনি এমন একটি সময়ে এটি দান করছেন, যখন ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে এবং এটি এই মূহুর্তে জেলা সদর হাসপাতালের জন্য এটি অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল বলে উল্লেখ করেন।”
ডা. ফৌজিয়া অারো বলেন, ” সাধারনত একটি টেস্টের ফলাফলের জন্য অামাদেরকে কখনও কখনও দশ দিনও অপেক্ষা করতে হয়।রোগীটি পজেটিভ, না কি নেগেটিভ তা জানতে বেশি সময় লাগার কারণকে সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়া একটি অন্যতম কারণ হিসেবে উল্লেখ করেন।”
ডা. ফৌজিয়া অারো যোগ করেন, ” করোনা মোকাবেলায় সরকারী উদ্যোগের পাশাপাশি এমন বেসরকারি উদ্যোগুলোও কার্যকরভাবে উৎসাহিত হওয়া প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন। ”

ডা.আবু সাঈদের পি সি অার মেশিন দান করা প্রসঙ্গে সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসাল্টেন্ট ও জেলা বি এম এ’র দপ্তর সম্পাদক ডা. তৌহিদ অাহমেদ বলেন, ” ডা. অাবু সাঈদ স্যারের মহানুভবতার জন্য অামরা চিকিৎসক সমাজ সত্যিই গর্বিত। এভাবে সমাজের হৃদয়বান মানুষগুলো যদি জনকল্যাণমুখী কাজে এগিয়ে অাসে, অামরা সত্যিই একটি সুন্দর মাতৃভুমি গঠন করতে পারব।”


Categories