চট্টগ্রামে সরকারী স্কুলে অনলাইনে ক্লাস শুরু।

প্রকাশিত: ৩:০৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০২০

এম. ইউছুফ | চট্টগ্রামঃ করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছেন। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধ ও শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তায় এ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি কয়েক দফা বাড়ানো হয়। ছুটির সময় শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।সরকার ঘরে বসেই শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পাঠদানের ব্যবস্থা নিয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে পাঠদান বন্ধ থাকায় ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পাঠ্যবইভিত্তিক অনলাইন ক্লাস শুরু করেছে চট্টগ্রামের নাসিরাবাদ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। সোমবার (১৩ জুলাই) উচ্চতর গণিত বিষয়ে অনলাইনে পাঠদান প্রদান করেন স্কুলের স্বনামধন্য সিনিয়র শিক্ষক কে. এস. এম. সাইফুদ্দিন মাহমুদ (রতন)। পাঠদান শুরুতে তিনি কোভিন-১৯ এ অনলাইন শিক্ষার গুরুত্বারোপ করেন।

বিশাল জনগোষ্ঠীকে পেছনে ফেলে কিছু মানুষের উন্নয়ন, অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা কাম্য নয়। সেটি হলে বৈষম্য বাড়বে। করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইন শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। যদিও আমরা জানি, নানা সমস্যা এতে বিরাজমান। তবু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কোনো ঝুঁকি সরকার নিতে পারে না।
বাংলাদেশের মতো একটি দ্রুত উন্নয়নশীল অর্থনীতিতে এ মুহূর্তে শিক্ষা খাতে যথাযথ বিনিয়োগও নিশ্চিত করা দরকার। তা সম্ভব না হলে উন্নয়নের মহাসড়কে আমাদের গতিশীল পদচারণা স্তিমিত হয়ে আসবে এবং বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় আমাদের সাফল্যের সক্ষমতা সংকুচিত হয়ে পড়বে।
অনলাইনভিত্তিক ক্লাস শুধুমাত্র পাঠদানের সীমাবদ্ধ না-হয়ে শিক্ষার্থীদের অনুশীলনে সহায়ক হয় সেজন্য ইন্টারনেট সংযোগ নিশ্চিত করা অপরিহার্য বলে মনে করেন অভিভাবকেরা।