চট্টগ্রামে লকডাউন যেভাবে চলছে

প্রকাশিত: ৩:৫৪ অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২০
।। এম. ইউছুফ।। চট্টগ্রামঃ
চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (সিসিসি) সিদ্ধান্ত অনুসারে উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের ২০টি প্রবেশপথের মধ্যে ১৪টি সম্পূর্ণ বন্ধ রাখা হয়। বাকি ছয়টি জরুরী প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য আংশিক খোলা রাখা হয়। লকডাউনে সকালবেলা সড়কে লোকজন তেমন না থাকলেও বিকালে অলিগলিতে আড্ডা, কিছু দোকানপাট খোলা এবং মাস্ক ছাড়া লোকজনকে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়।
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা সকাল থেকেই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ শুরু করেন।
এলাকায় এইচবি ফ্যাশন লিমিটেড, এইচকেটিজি গার্মেন্টস লিমিটেড, কাট্টলী টেক্সটাইল লিমিটেড এবং গার্টেক্স গার্মেন্টস লিমিটেড নামে চার প্রতিষ্ঠান খোলা ছিল। প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা কমচারীরা পায়ে হেঁটে চাকরীতে যেতে দেখা যায়।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান জানান, সকালে রাস্তায় গণপরিবহন ও রিকশা চলাচল করেনি। কিন্তু ওই এলাকায় চারটি গার্মেন্টস খোলা রেখে তাদের কাজ পুরোপুরি চালু রাখায় শ্রমিকরা হেঁটে আসা-যাওয়া করছিলেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী হাসান বলেন, “প্রতিষ্ঠানগুলোর ঊর্ধতন কর্মকর্তাদের বলেছি লকডাউন এলাকার ভিতর এভাবে কারখানা খোলা রাখা যাবে না। নিতান্ত চাইলে অল্প সংখ্যক কর্মীকে কারখানার ভিতরে থাকার ব্যবস্থা রেখে কাজ চালু রাখতে পারেন।
স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নেছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, পাহাড়তলি ও আকবর শাহ থানার ওসি, সেনাবাহিনীর প্রতিনিধিসহ ভ্রাম্যমান আদালত ওই চার পোশাক কারখানায় গিয়ে কথা বলেন। আলোচনায় তারা সম্মত হয়েছেন, আগামীকাল থেকে কারখানা বন্ধ রাখবেন।