ঘরে ভালো থাকবেন যেভাবে?

প্রকাশিত: ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২০

অধ্যাপক ডাঃ শুভাগত চৌধুরী

জীবন তো বদলে দিয়েছে করোনা। কঠিন সময় জানি, তবু ভালো থাকতে হবে। শরীর, মন রাখতে হবে ভালো। কিছু তো করাই যায়। রোজ রোজ কিছু উদ্যোগ নিলে সেসবের সঙ্গে অভ্যস্ততা তৈরি হবে। ভালো থাকবে মন আর শরীর। আর সেসব নিয়ে আজ কিছু কথা বলা।

একটু বাইরে
ঘর থেকে বারান্দায়, রোদ পোহাতে আসুন। স্বামী-স্ত্রী করুন চা পান। বারান্দায় রোদ্দুর। দুই পা নাচিয়ে পত্রিকা পড়া। যদি টবে থাকে গাছ, তাহলে দেখুন নতুন কুঁড়ি, নতুন ফুল আর নতুন সবুজ। করুন পরিচর্যা। যদি নিজের প্রাঙ্গণ থাকে ঘের দেওয়া, তাহলে পা ফেলুন সবুজ ঘাসে। ঘাসের ওপর পায়ের পরশ আপনাকে আনন্দ দেবে।

দিনে কয়েক কদম
ছিল অভ্যাস ১০ হাজার কদমের। এবার কমান, হোক ৫ হাজারবার পা ফেলা। হাঁটুন সারা ঘর, নয়তো বারান্দা, করিডর বা ছাদে। গৃহবাসী হলেও একে উপভোগ করুন। কম বসে, হাঁটুন বেশি। রিমোট (টিভি) ব্যবহার কম করুন। হেঁটে হেঁটে গান শুনুন বা ফোনে কথা বলুন।

সারা দিন চঞ্চল
থাকুন সক্রিয়, চঞ্চল। বসে থাকা নয়। গেরস্তালি কাজ করুন। ঘর ধোয়ামোছা। বাসন মাজা। কাপড় ধোয়া। টিভি দেখতে দেখতে উঠুন, হাঁটুন। বিজ্ঞাপন চলার সময় করুন জগিং। দড়ি লাফও দিতে পারেন।

ফোন করুন বা এসএমএস
ঘরে থাকা মানে একা থাকা নয়। যুক্ত থাকুন সবার সঙ্গে। পরিবার–পরিজন, বন্ধু সবার খোঁজ নিন। শারীরিক দূরত্ব থাক, তাতে কী? আছে ফোন। আছে টেক্সট বা ভয়েস মেসেজ । আছে গ্রুপ ভিডিও চ্যাট। সেসব কাজে লাগান নিজেকে সবার সঙ্গে জুড়ে রাখতে।

ডেকে দুশ্চিন্তা নয়
খবর দেখা, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম—এসব জায়গায় কম সময় কাটান। এত খবর দেখা নয়। দুশ্চিন্তা হবে। দিনে একবার খবর দেখলেই হয়। ফেসবুকেও যেন থাকে সময়জ্ঞান। দিনের একটা নির্দিষ্ট সময় পর ফেসবুককে টা টা বলুন।

শিথিল হওয়ার সময় খুঁজুন
স্নান করুন অনেকক্ষণ। শাওয়ারে কাটুক সময়। গুন গুন গুন গুনানি। হেড়ে গলা হোক তাতে কী? এটা তো বাথরুম সং! শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যায়াম করুন। ধ্যানচর্চা আপনাকে চাঙা রাখতে সাহায্য করবে। আর করুন ব্যায়াম। এসব অভ্যাস আপনার নিজেকে স্থির হতে সাহায্য করবে।

সাহায্য নেবেন, দেবেন
নিজের চাহিদা থাকলে, চাইতে লজ্জা কেন? আর অন্যদের দিকে সাহায্যের হাত নিজেও বাড়ান। সম্ভব হলে কাউকে পাঠান খাবার। কারও জন্য খুজে দিন প্লাজমা থেরাপির জন্য স্বেচ্ছাসেবী। অক্সিজেন লাগলে সামর্থ্য থাকলে সাহায্য করুন।

নতুন কিছু করুন
নতুন কোনো শখ জাগলে সেটা করুন। ছবি আঁকা, সেলাই–ফোঁড়াই করুন। যে ইচ্ছা আগে সুপ্ত ছিল সেটা এবার উসকে দিন। যন্ত্রসংগীত শেখার ইচ্ছা ছিল অনেক দিনের! আছে অনলাইন কোর্স। শিখুন বিদেশি ভাষা। নতুন রান্না, যোগব্যায়াম যা ইচ্ছা। লিখুন খেরো খাতা, ডায়েরি। দেখবেন পরে কাজে লাগবে।

লক্ষ্য থাক স্থির
দিন–রাতের হিসাব রাখুন। কী করবেন। কী করা উচিত। স্বাস্থ্যবিধি মানা। হাত ধোয়া। পরিচ্ছন্ন থাকা। এসব করতে হবে প্রতিদিন।

সব মেনে নিন সহজভাবে
পরিবারের সঙ্গে সময় কাটান। স্ত্রী–স্বামী, ছেলেমেয়ে, মা–বাবার সঙ্গে বসে খান। সময় উপভোগ করুন আড্ডায়। সৃজনশীল কাজে নিজেকে করুন নিমগ্ন। কোনো বিষয়ে চিন্তিত না হয়ে সহজ সমাধানের পথ খুঁজুন।

বদলে ফেলুন বদভ্যাস
অস্বাস্থ্যকর অভ্যাস থাকলে বদলান। ধূমপানে আসক্তি থাকলে ছেড়ে দিতে চেষ্টা করুন। ক্রোধে বিস্ফোরিত হওয়ার ধাত থাকলে সেটাও বদলান। নির্যাতনের অভ্যাস থাকলে বাদ দিন, ক্ষমা চান।

মনে রাখুন, আপনি একা নন। পৃথিবীর সবাই একই বিপদে। তাই সাহস রাখুন মনে। লড়াই করে জিততে হবে এই করোনার কাল।