খেজুরের যত গুণ।

প্রকাশিত: ৮:৩১ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

মো.আশরাফুল লতিফ ( তুহিন), ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

মরুভূমির ফল খেজুর। এটি মিষ্টি স্বাদে অনন্য। মধ্যপ্রাচ্য ছাড়াও আফ্রিকা, আমেরিকা ও এশিয়ার কিছু ক্রান্তীয় অঞ্চলে এর ব্যাপক চাষ হয়।

মুসলিম বিশ্বে খেজুরের ব্যাপক ধর্মীয় গুরুত্ব রয়েছে। হযরত মুহাম্মদ (সা.) খেজুর খুবই পছন্দ করতেন। রমজান মাসে রোজা সময় খেজুর দিয়ে ইফতার করা সুন্নাত।

পুষ্টিবিদদের মতে, প্রাপ্তবয়স্ক সবার প্রতিদিন অন্তত দুটি করে খেজুর খাওয়া উচিত। শরীরে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বৃদ্ধি, ওজন নিয়ন্ত্রণ, মস্তিষ্কের সুস্থতা, হাড়ের গঠন ঠিক রাখা ছাড়াও ফলটির রয়েছে আরও অনেক স্বাস্থ্যসম্মত গুণ।

ত্বকের সমস্যা রোধের একটি অসাধারণ উপাদান এটি। সম্প্রতি পশ্চিমে অনেক কসমেটিক ব্র্যান্ড ফলটির পুষ্টিগুণ কাজে লাগিয়ে তৈরি করছে বিভিন্ন ধরনের স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট। অবশ্য এর বীজের তৈরি তেল অনেক আগে থেকেই ত্বকের যত্নে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

খেজুরে রয়েছে প্রচুর কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন এ, বি১, বি২, বি৩, বি৫, বি৬, সি, ডি, ফাইবার, প্রোটিন। আছে পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, কপারের মতো খনিজ উপাদান। সঙ্গে রয়েছে তিন ধরনের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এগুলো হলো ফ্ল্যাভোনয়েডস, ক্যারোটেনয়েডস ও ফেনলিক অ্যাসিড।

ফলটি সব ত্বকের জন্যই কার্যকর। তবে শুষ্কতা দূর করতে এর জুড়ি নেই। উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা সারিয়ে তোলে। ফলটির পাঁচ রকমের ভিটামিন বি  এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এর প্রোটিন ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ব্রণের ইনফেকশন প্রতিরোধ করে।