খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনির্বাচিত অফিসার্স কল্যাণ পরিষদের সাথে ভিসির সৌজন্য সাক্ষাৎ।

প্রকাশিত: ৮:৪১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৬, ২০২১
মোঃ মিজানুর রহমান খুলনা প্রতিনিধি।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনির্বাচিত অফিসার্স কল্যাণ পরিষদের সাথে ভিসির সৌজন্য সাক্ষাৎ।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন প্রশাসনিক গতিশীলতা অর্জনের ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের নিষ্ঠা, আন্তরিকতা ও স্বচ্ছতার সাথে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, কর্মকর্তাদের দক্ষতা ও আন্তরিকতার ওপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কাজের গতিশীলতা বহুলাংশে নির্ভর করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স কল্যাণ পরিষদের নবনির্বাচিত নির্বাহী কমিটির সদস্যরা আজ রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) দুপুরে উপাচার্যের সাথে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাতে গেলে তিনি এসব কথা বলেন।

উপাচার্য বলেন, তাঁর দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে কর্মকর্তারা তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করায় ইতোমধ্যে প্রশাসনে গতিশীল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তিনি কাজের পরিবেশ সুন্দর রেখে কর্মকর্তাদের নিজ নিজ ক্ষেত্রে দক্ষতা বৃদ্ধির পরামর্শ দেন যাতে বিশ্ববিদ্যালয় সামনে এগিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, সম্মিলিত প্রচেষ্টায় যেকোনো প্রতিষ্ঠানের সাফল্য অর্জিত হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে আমরা গর্ব করি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও ভাবমূর্তি বৃদ্ধিতে সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। এই অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জনই এখন আমাদের মূল উদ্দেশ্য। উপাচার্য বলেন, দলমত নির্বিশেষে আমাদের লক্ষ্য অর্জনে কাজ করতে হবে। তিনি আইনের মধ্যে থেকে কর্মকর্তাদের ন্যায্য ও ন্যায়ত সুযোগ-সুবিধার বিষয়ে তাঁর পক্ষ থেকে সম্ভব সহযোগিতার আশ্বাস দেন। উপাচার্য সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন করায় নির্বাচন কমিশনসহ কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান।

পরিষদের পক্ষ থেকে উপাচার্যকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান নবনির্বাচিত সভাপতি এসএম মনিরুজ্জামান পলাশ ও সাধারণ সম্পাদক দীপক চন্দ্র মন্ডলসহ পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্যবৃন্দ। সাবেক সভাপতি শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাঃ আলী আকবর এসময় উপস্থিত ছিলেন।


Categories