কাহালুতে করোনায় মৃতের সৎকারে চিতার পাশে ইউএনও ও স্বাস্থ্য কর্মকতা

প্রকাশিত: ৯:১৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

শিপলু আহমেদ, কাহালু বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার কাহালু চারমাথা এলাকার ব্যবসায়ী মানিক সাহা (৬৫) কয়েক দিন আগে করোনায় আক্রান্ত হন। গত রবিবার বিকালে তার অবস্থার অবনতি হলে কেউ এগিয়ে আসেননি। প্রতিবেশী যুবক সুদর্শন তাকে হাসপাতালে নেওয়ার জন্য অনেকের কাছে ছুটে যান। সুদর্শন বলেন, কোথাও সহযোগিতা না পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে বিষয়টি জানান। পরে প্রশাসনের সহযোগিতায় মানিক সাহাকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে রাত ৯টার দিকে ডাক্তার মানিককে মৃত ঘোষণা করেন। ওই রাতেই লাশ কাহালুতে আনা হলেও সৎকারের জন্য কেউ এগিয়ে আসেননি। ইউএনও মো. মাছুদুর রহমানের উদ্যোগে ভোর ৫টার দিকে লাশ স্থানীয় শ্মশানে নেওয়ার পথেও ঘটে বিপত্তি। শ্মশানের রাস্তার মাঝপথে লাশবাহী ট্রাক রেখে সটকে পড়ে চালক। ইউএনও তার নিজস্ব গাড়িচালককে দিয়ে লাশটি শ্মশানের কাছে নিয়ে যান। লাশ পৌঁছলেও মৃত ব্যক্তির দুই সন্তান ছাড়া খাটিয়া ধরার মতো নেই কেউ। এ অবস্থা দেখে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ যাকারিয়া রানা নিজেই খাটিয়া ধরলে আরও দুজন এগিয়ে আসেন। করোনাযুদ্ধে সামনের সারিতে থাকা এই দুই কর্মকর্তা চিতার পাশে থেকে করোনায় মৃত ব্যক্তির দাহ ও সৎকার সম্পন্ন করেন।


Categories