করোনার সংকটময় পরিস্হিতিতে দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুর রহমানের খাদ্য বিতরণ।

প্রকাশিত: ৬:৩২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০২০

করোনা কালিন সংকটময় সময়ে অসহায় দুস্থ মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবার বিতরণ করছেন দেশসেরা উদ্ভাবক মিজানুর রহমান।
তিনি যশোর জেলার শার্শা উপজেলার বাসিন্দা।
মিজানুর রহমান বলেন  দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার শুরুতেই আমি অসহায় মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবার ও মাস্ক বিতরণ করে আসছি এবং আজ অবধি কোনদিন বাদ যায়নি। বাদ দেয়নি কারণ আমি যদি খাবার না বিতরণ করি তবে ঐ মানুষ গুলো না খেয়ে থাকে। তাদের মুখের দিকে চেয়ে আমি মানব সেবার এই পথ বেছে নিয়েছি। যতদিন করোনা থাকবে ততদিন আমি এই মানব সেবার কাজ করে যাব। এছাড়াও তিনি আরও বলেন প্রতি শুক্রবার প্রবাসী ভাইদের সাহায্যে দেশের বিভিন্ন এতিমখানায় কোরআন শরীফ, মাস্ক ও রান্নাকরা খাবার বিতরণের কাজ চলমান আছে।তিনি বলেন আপাতত দৃষ্টিতে দেখলে মনে হবে না যে মানুষের খাদ্য অভাব আছে তবে খাবার বিতরণ করতে গেলেই বোঝা যায় মানুষ কত কষ্টে আছে। এজন্য সমাজের বৃত্তবানদের  এগিয়ে আসা উচিৎ। আর এই জন্যই আমি অসহায় মানুষের কল্যানে একটি ফ্রি খাবারের হোটেল করার পরিকল্পনা করেছি। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই তা শুরু করবো ইনশাল্লাহ।

উল্লেখ্য এই মিজানুর রহমান প্রকৃতপক্ষে একজন মোটর মেকানিক। তিনি শার্শা উপজেলার সামনে একটি ছোট ওয়ার্কশপের মালিক। নতুন কিছু সৃষ্টির নেশায় ইতোমধ্যে তিনি একাধিক বার জিতে নিয়েছেন দেশসেরা উদ্ভাবকের পুরস্কার সহ উপজেলা,  জেলা ও জাতীয়  পর্যায়ের কমপক্ষে ৫০ টি সন্মাননা ও পুরস্কার । এছাড়াও তিনি সার্ক মানবাধিকার কর্মী হিসাবেও বৃক্ষরোপন সহ বিভিন্ন মাবনসেবামুলক কাজ করে যাচ্ছেন।


Categories