করোনাকে অবহেলা ॥ মাশুল গুনছেন যুক্তরাষ্ট্রের যুবকরা

প্রকাশিত: ১২:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত ২৩ লাখ ৮৮ হাজার ১৫৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। মারা গেছেন এক লাখ ২২ হাজার ৬১০ জন। তবে নতুন করে সংক্রমণের দিকে দিয়ে সবচেয়ে বেশি ভুগছে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও পশ্চিম অংশ। আর এসব আক্রান্তদের মধ্যে তরুণদের সংখ্যাই বেশি।

দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা নীতিকে অগ্রাহ্য করার কারণে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন তরুণরা। যদিও করোনায় মৃতের মধ্যে তরুণদের সংখ্যা কম, তারপরও করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছেন-এমন ব্যক্তিরা (বয়স্করা) তাদের মাধ্যমে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন ইনস্টিটিউটের সাবেক ডিরেক্টর ড. টম ফ্রেইডেন এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘ফ্লোরিডার মতো কিছু কিছু জায়গায় যুবকরা সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, যাদের বয়স ২০ থেকে ৪০ এর মধ্যে হবে, আশা করা হচ্ছে, এই ধাক্কায় তাদের মধ্যে মৃত্যুর হার কম হবে…(তবে) যারা (তরুণরা) আজ আক্রান্ত হচ্ছেন তাদের মাধ্যমে অন্যরা আক্রান্ত হবেন।’ তবে তরুণদের করোনা সংক্রমণের লম্বা লাইন দেখে বিস্মিত নন দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফৌসি। ফ্রাইডেনের মতো তার শঙ্কা সামনের দিনগুলোতে তরুণদের সংক্রমণের চিত্র নিয়ে।

‘প্রথমে তারা সংক্রমিত হচ্ছেন, তারপর তারা বাসায় আসছেন। বাসায় আসার পর তাদের মাধ্যমে পরিবারের বয়স্করা সংক্রমিত হচ্ছেন এবং তারা জটিলতায় ভুগছেন। একপর্যায়ে তাদের হাসপাতালে যেতে হচ্ছে’, বলেন ড. ফৌসি।

যুক্তরাষ্ট্রের তরুণদের করোনায় সংক্রমণের বিষয়টি এমন এক সময়ে প্রকাশ পেল যখন দেশটির অর্ধেকেরও বেশি অঙ্গরাজ্যে নতুন করে করোনায় সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। কিছু কিছু অঙ্গরাজ্যে প্রতিদিন রেকর্ডসংখ্যক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন।

সোমবার ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের স্বাস্থ্য অধিদফদর জানিয়েছে, সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

সূত্র : সিএনএন