কবিতা : মধ্যবিত্ত।

প্রকাশিত: ৩:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২০

 

কবিতার নাম–মধ্যবিত্ত
লেখক–মোঃ আঃ কদ্দুছ
বাটাজোর,ভালুকা,ময়মনসিংহ
তাং–২৩/৪/২০২০
——+-++——–+—————-
চারদিকে শুধু চাই,
মধ্যখানে স্বল্পটাই,
চাল আছে তো চুলো নাই,
খাওয়ার আগেই চাল নাই,,
হাতে থাকে সামান্য টাই,
এখন যে মোর হাতে নাই,
উচ্ছেমত খরচ নাই,
শুধু জানি উপায় নাই,
যা আছে বেঁচে ভাই,
তবুও আমার ফুটানী চাই,
বলবো আমার দামীটাই,
কেবলে?মোর কিছু নাই,
অভাব আছে,টাকা নাই,
তবুও তাহার যোগান চাই,
সাধআছে তোসাধ্য নাই,
তবুও আমার ভালোটাই,
পাড়ার সংঘ চাঁদা চাই,
কিকরে যে দেবো ভাই,
বউয়ের নতুন শাড়ী চাই,
কি দিয়ে যে বউ সাজাই,
পকেটে যে টাকা নাই,
তবুও আমি দোকানে যাই,
দোকানীকে বলি ভাই,
একটা শাড়ী বাকী চাই,
দোকানী রেগে বলে তাই,
বাকীতে কোন বিক্রি নাই,
দুঃখ নিয়া বাড়ী যাই,
ছেলে বলে তার  খাতানাই,
মেয়ে বলে তার জামানাই,
 কিপরে যে বাইরে যাই!
বাবা বলে মোর ঔষধনাই,
মায়ের দাবী বাড়ী চাই,
দৌড়ে ঘরে ডুকে  যাই,
শুয়ে একা ভেবে তাই,
চিন্তায় আমি ঘুমিয়ে যাই,
বউয়ের ডাকে জেগে যাই,
ঝাড়ু হাতে বলছে হাই,
শাড়ীকেন আনো নাই,
এভাবে বাড়ীর আর সবাই,
দাবীমত জিনিস চাই,
 আমার কথা কেভাববে ভাই?
শোনো সকল মধ্যবিত্ত ভাই,
আল্লাহ ছাড়া অভাগাদের কেউনাই,
মধ্যবিত্ত সকল বন্ধু ভাই,
এসো হাতে হাতরাখো ভাই,
সবাই মিলে সকলের দূরত্ব ঘুচাই।