কবিতা: ভালোবাসার হাসি

প্রকাশিত: ১২:৪২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০২০
কবিতা: ভালোবাসার হাসি
মোঃ আঃ কদ্দুছ
যত সব হাসি, সবই হবে বাসি,
আকাশের তারা শশী
পড়বে এধরায়   খসি
দিবসের আলোর প্রদ্বীপশিখা,
আঁধারে ডুবিবে  সবই
করুনঘন এক বিভীষিকা,
জীবন রবি সাংগ হবে
ফিকে হয়ে আঁধার  ভোর,
যতসব গঞ্জনার সূর,
হবে অসারর বাঁশির সূর।
যতসব অট্ট হাসি,মুসকি হাসি
ব্যঙ্গ হাসির ধারা
অর্ঘলমুক্ত হবে,
স্বাধীন তারার মুক্তধারা।
তুমি মোর নিশি ভোর
কাগুজে মোড়কে জড়ানো
ভালোবাসার অট্টহাসি।
পাগলের পাগলামীতে
আষাঢ়ের অঝোর ধারায়
মুক্ত  ফোয়ারায়
যে বাজায় মুক্ত সূরে
বাঁশের ঘুনে ধরা
সূর হারা বাঁশিতে।
তুমি মোর জীবনের
বিষাক্ত ছোবলে
নাগনাগিনীর পাগলপরা
উদ্যত ফনাতে,
গানের আসরে সূরের মুর্ছর্নায়
শিল্পীর  ক্যান ভাসে
কোয়াশাপড়া দুর্বাঘাসে
মুক্তদানার মুক্ত ছড়াতে
আঁধার  ভালের সিঁদুর  রাঙ্গাতে।
শারৎ প্রভাতের অরুণ উদয়ের
দুয়ারে দাঁড়ানো তোমার,
মুক্তবাহুর আলিঙ্গনে,
নীল গগনের উড়ন্ত ডানায়,
মুক্ত আলোর বাতাসে,
তুমি কবিতার করবী
জড়ানো আতর গোলাপে
গানের যন্ত্রীর মুর্ছনার
আবেশে তোমার
শুভ্রবসনায় তাপসী রাবেয়া।
কোন সে বনে ধায়
আঁধার  তিতিরে
বনে বাদাড়ের হিজল তমালে,
মহুয়াবনের কাজল কমল
নিখিল স্বপ্নার অঙ্গ হেলনে,
দূর দিগন্তের  ছলনা চলনে
অসত্য  তথ্য বলনে
তুমি মহাওস্তাদ সম
হংস নয়না ।
কোকিল ডাকা বসন্তে
শিমুল পলাশের, বকুল কামনা।
তুমি মহা প্রলয়
নিঃস্বকারী ললনা,
কতযে রুপ রস
মিহির বসন্তে,
ঢালছে তন্বী কামনা,
আঁধার  হরনা,
মিছে করে বলো
কতযে ছলনা,
মঙ্গল চরণা ছন্দবরণা।
হারানো তিথিতে
নষ্ট প্রীতিতে
ভংগ করোনা ব্যঙ্গ বরণা।
কিযে মায়া হংসী বিহনে
বিধ্বস্ত চেতনায়
তোমার যত চাওয়া,
কল্প বাহনে হারানো বেদনা
কত যে মোহিনী মন্রমায়ার
সূরেলা কুজন, কাক ভোরে,
তোমার বন্দনা করেযে কতকবি,
রবিঠাকুরের  সংগীতে।
কোথা গেলে পাই,
তোমার পার্শ্ব নাই,
গোলাপ বসনা কামনা হরিণী,
অমানিশার  শশী
পূর্ণিমা র মহা হাসি,
সবই যাহা মিছে,
যখন তুমি বল ভালোবাসি,
ঠিক তখনই মুখে ফুটে
যেন মহা তৃপ্তির হাসি
আমি ভালোবাসি,ভালোবাসি।।
শুধু  তোমাকেই ভালোবাসি
আর তোমার ঐ মুখের  মুচকি হাসি।