কবিতা: ঋতুর আমন্ত্রণ

প্রকাশিত: ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ, মে ২৫, ২০২২

ঋতুর আমন্ত্রণ
— মোঃ হারুনুর রশীদ

সোনালী সব স্মৃতিগুলো যতনও করিয়া
বেদনার নীল খামে রেখেছি ভরিয়া,
হঠাৎ কখনো যদি খোলে যায় খাম
দু-চোখের জলে তার দিতে হয় দাম।

চৈত্রের তাপদাহ মরিচিকা হয়ে
স্মৃতির আবেশ ছড়ায় তৃষ্ণার্ত হৃদয়ে,
কষ্টেরা ভীর করে – ভাঙ্গে এই মন
বেদনারা পীড়া দেয় হয়ে প্রিয়জন।

বর্ষার কালো মেঘ দিয়ে যায় সাড়া
হৃদয় ব্যাকুল হয় স্মৃতি করে তাড়া,
রিমঝিম বৃষ্টি চুপি চুপি বলে
আজ কেন ভিজনাকো আমারই এ জলে।

শরতের কাঁশফুল হেলিয়া দুলিয়া
আজো মোরে ডাকে যেন বাতায়ন খুলিয়া,
বলে তারা আবার এসো এই আঙ্গিনায়
শরতের বৈকালী সোনালী বেলায়।

হেমন্তের ঝড়ো হাওয়ায় উদাসী এ মন
হঠাৎ যেন খুলে দেয় স্মৃতির বাতায়ন,
শুকনো পাতার মর্মর ধ্বনি নিঃশব্দে বলে
কেন আজও পুড়াও মন স্মৃতিরই অনলে।

শীতের কুয়াশাগুলো এসে মৃদু পায়
হিমেল পরশ দেয় ব্যথিত হিয়ায়,
বলে তারা আসনাতো আমার এই প্রভাতে
দেখা কেন করনাকো প্রিয়ংবদার সাথে।

বসন্ত এসে মোরে চুপিসারে বলে
আমিতো ফুটাই ফুল আজও ডালে ডালে
গন্ধ ছড়াই আজো ফুলেরই সুবাসে
তবে কেন তুমি নেই আমার এই নিবাসে?

ঋতু আসে ঋতু যায় এই তার রীতি
ভেঙে দিয়ে যায় মন পালা পদলের স্মৃতি
সুখ-দুঃখ সব স্মৃতি -হয়ে একাকার
কষ্টের জাল বুনে হৃদয়ে সবার।।
——– ❤❤❤ ——–


Categories