উল্লাপাড়ায় পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৯:২৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০
স্টাফ রিপোর্টারঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় স্বামীর হাতে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চর-কালিগঞ্জ গ্রামে। পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের চর-কালিগঞ্জ গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে (পুলিশ কনস্টেবল) মনিরুল ইসলাম (২৬) এর সাথে একই ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে সুরভী আক্তারের সাথে ২ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়।
গৃহবধূর স্বজনেরা জানান বিবাহের সময় ১০ লাখ টাকা যৌতুক নিয়েছিল পুলিশ কনস্টেবল মনিরুলের পরিবার। জানা যায় পুলিশ কনস্টেবল মনিরুল অন্য মেয়ের সাথে পরকীয়া প্রেমের জড়িয়ে পড়ে, বিষয়টি তার স্ত্রী সুরভী জানতে পারলে বৃহস্পতিবার তাদের মাঝে বাকবিতন্ডা হয়। এরপর থেকেই গৃহবধূ সুরভী আক্তার কে রহস্যজনকভাবে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি।
শুক্রবার (২৮ আগস্ট) সকালে বাড়ির পাশেই পুকুর থেকে মাছ ধরার জাল দিয়ে খোঁজার সময় লাশটি ভেসে ওঠে।  গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ শহীদ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে পাঠিয়েছে। গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ এটি আত্মহত্যা নয় পরিকল্পিত হত্যা। এঘটনায় স্থানীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে বিচারের দাবিতে পুলিশ কনস্টেবল মনিরুলের বাড়িঘর ভাংচুরের চেষ্টা চালায়।
এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক কুমার দাশ (পিপিএম) জানান এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা ঘটনাটি স্পষ্ট নয়। লাশ ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে। মেয়ে পরিবারের পক্ষ এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ করেনি। ওসি আরো জানান এই ঘটনায় জিজ্ঞাবাদের জন্য পুলিশ কনস্টেবল মনিরুল ও তার মা মনিরা বেগম কে আটক করা হয়েছে।

 


Categories