ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার এর উদ্যোগে পত্নীতলার ২ ইউনিয়নে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন

প্রকাশিত: ৫:০৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২২
অহিদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ “টেকসই আগামীর জন্য, জেন্ডার সমতায় আজ অগ্রগণ্য” এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে পত্নীতলা উপজেলার পত্নীতলা  উচ্চ বিদ্যালয়ে, আন্তঃধর্মীয় ফোরাম, জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম, ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-পত্নীতলা, বিকশীত নারী নেটওয়ার্ক ও ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-পত্নীতলা উচ্চ বিদ্যালয় ইউনিটের আয়োজনে, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশের সহযোগিতায় উদযাপন হলো ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে পত্নীতলা উচ্চ বিদ্যালয়ে র‍্যালি, রচনা প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয় এবং প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়।
উক্ত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন পত্নীতলা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ ওবাইদুল ইসলাম( স্বপন), নব নির্বাচিত ইউপি সদস্য  মোঃ সালাউদ্দীন হোসেন বাবলু ,জাহাঙ্গীর আলম,যোগেশ রায়,আন্তঃধর্মীয় ফোরামের স্বমন্নয়কারী মোঃ মজনুর রহমান,ফোরাম সদস্য মোঃআতাউর রহমান চৌধুরী, মোজাফফর রহমান, বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের ইউনিয়ন সভাপতি মোসাঃমাসুদা বেগম, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর ইউনিয়ন সম্বনয়কারী মোঃ হামিদুল ইসলাম, ইয়ূথ লিডার আব্দুর রহিম, আমিনুর ইসলাম, আনোয়ার হোসেন, মাসুদ রানা, ও সহকারী শিক্ষকা মোসাঃ রোজিনা খাতুন সহ অন্যান্য সহকারী শিক্ষকবৃন্দ।
নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ ওবায়দুল ইসলাম স্বপন বলেন, আজকের এই দিনে আমি বলতে চাই টেকসই উন্নয়ন করতে হলে  জেন্ডার বৈষম্য দুর করতে হবে আর এই বৈষম্য দুর করতে হলে সর্বপ্রথম আমাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে এই পরিবর্তন কেউ এসে করে দিবে না আমাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে সোচ্চার হতে হবে।
আন্তঃধর্মীয় ফোরামের স্বমন্নয়কারী মোঃ মজনুর রহমান বলেন, আমরা সবাই স্বপ্ন দেখে আসতেছি নারীর উন্নয়ন ক্ষমতায়ন হউক কিন্তু আমি ব্যাপারটাকে স্বপ্ন দেখার মাঝে রাখতে চাই না, আমি চাই আজ থেকে আমরা সবাই মিলে শপথ করি পত্নীতলা ইউনিয়ন জেন্ডার সমতা নিশ্চিত করি, নারীনেত্রী মাসুদা বেগম বলেন, আমি বলতে চাই নারীর সমতা নিশ্চিত করতে হলে সর্বপ্রথম নারীদের সু শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হবে কারন আপনারা লক্ষ্য করেন আগের অবস্থা আর বর্তমান অবস্থা আগেকার সময় মেয়েদের বন্দী করে রাখা হতো মেয়েরা ঘরের কাজ করবে আর পুরুষ রা বাইরে অফিস আদালতে কাজ করবে কিন্তু আজ দেখেন বৈপ্লবিক পরিবর্তন বাংলাদেশের প্রতি টি গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন নারীরা কারন শিক্ষায় তাদের কে সামনে এগিয়ে নিয়েছে তবে তাদের সহায়ক পরিবেশ করে দেওয়ার দায়িত্ব প্রতিটি পরিবারের।পরিশেষে সভাপতি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আজকের আলোচনা সমাপ্তি করেন।

Categories