ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার এর উদ্যোগে পত্নীতলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন

প্রকাশিত: ৫:২৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২২
অহিদুল ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ “টেকসই আগামীর জন্য, জেন্ডার সমতায় আজ অগ্রগন্য” এই স্লোগানকে সামনে রেখে একটি বিশেষ র‍্যালি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সুবরাজপুর মোড় প্রদক্ষিন করে আবার ইউনিয়ন পরিষদে শেষ হয়।
উক্ত র‍্যালি শেষে কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃজাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে একটি বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় উপস্থিত নারী পুরুষের সংখ্যা ছিল প্রায় ৭০ থেকে ৭৫ জন। এরমধ্যে নারী ৫০ জন ও পুরুষ ২৫ জন। উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন আন্তঃধর্মীয় ফোরামের সভাপতি হুমায়ুন কবির চৌধুরী, নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ ফারুক চৌধুরী, বিকশিত নারী নেটওয়ার্কের সভাপতি লাভলী চৌধুরী,গ্রাম উন্নয়ন দলের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন, কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন ইয়ুথ ফোরামের কো-অর্ডিনেটর রনি ইসলাম, ইউনিয়ন ইয়ুথ ফোরামের সদস্য মৌসুমী আক্তার, হাবিবুর রহমান, মেহের বানী, মহসিনা, রুবিনা, মুন্না ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর ইউনিয়ন স্বমন্বয়কারী হামিদুল ইসলাম।
উক্ত আলোচনা সভায় হুমায়ুন কবির চৌধুরী সবার উদ্দেশ্য বলেন, আমাদের পুর্ব পুরুষদের ধারনা ছিল নারীরা শুধু ঘরে থাকবে, কিন্তুু আজ আপনারা একটু চোখ মেলে তাকান বাংলাদেশের প্রতি টি কর্মক্ষেত্রে নারীদের অবদান রয়েছে।
লাভলী চৌধুরী বলেন, আমাদের নারীদের সম অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হলে বেগম রোকেয়াকে অনুসরণ করতে হবে এবং গনজাগরণ সৃষ্টি করতে হবে কারন শহরের তুলনায় গ্রামের নারীরা অবলা সহজ সরলা ফলে তারা এখনো নির্যাতিত হচ্ছে। ইমাম তোফাজ্জল হোসেন বলেন, আমি ও চাই নারীদের সমতা টেকসই হোক তবে তারা যেন তাদের ক্ষমতার অপব্যাবহার না করে কারন সমাজে নারীরা নির্যাতিত হলে প্রকাশিত হয়, আর পুরুষরা নির্যাতিত হলে প্রকাশিত হয় না।
উক্ত আলোচনা শেষে বিশেষ খেলাধুলার আয়োজন করা হয়, মেয়েদের চেয়ার বদল, হাড়ি ভাঙ্গা, বালিশ বদল, খেলাধুলা শেষে পুরষ্কার বিতরনী করা হয়। পরিশেষে সভাপতি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

Categories