আবদুস সাত্তার কলেজ মাঠে বিট পুলিশিং ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সভা।

প্রকাশিত: ১১:১০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০২১
মিয়া মোহাম্মদ এলাহি (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি।

আবদুস সাত্তার কলেজ মাঠে বিট পুলিশিং ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সভা।

‘বিট পুলিশিং বাড়ি বাড়ি, নিরাপদ সমাজ গড়ি’ শ্লোগানের ব্যানারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানা পুলিশের আয়োজনে পুলিশিং ও সাম্প্রদায়িক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলাধিন অরুয়াইল আব্দুস সাত্তার ডিগ্রি কলেজ মাঠে এই বিট পুলিশিং ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।
হাজি আবু তালেবের সভাপতিত্বে মুসলিম ও হিন্দুবধর্মাবলম্বী লোকদের নিয়ে আয়োজিত ‘বিট পুলিশিং ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন আবদুস সাত্তার ডিগ্রি কলেজের সম্মানিত অধ্যক্ষ মোখলেছুর রহমান, শিক্ষক শ্রীমন্ত চক্রবর্তী, বাশার মাষ্টার, গাজী মো. বোরহান উদ্দিন, গাজী মো. কাপ্তান, অরুয়াইল বাজার জামে মসজিদের ইমাম মামুনুর রশিদ, যুবলীগ নেতা জাবেদ আল হাসানসহ আরও অনেকে।
বক্তারা বলেন- বিভিন্ন আনাকাংখিত ঘটনার প্রকৃত দোষীদের তদন্তের মাধ্যমে খোজে বের করে তাদের শাস্তি দিন আমাদের কোন আপত্তি নেই, সাথে সাথে নিরপরাধ ব্যাক্তিদের মুক্তি দেয়ার ব্যবস্থা করার অনুরোধ করছি এবং অতি তাড়াতাড়ি অরুয়াইল পুলিশ ক্যাম্প পুনঃস্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহণ করে আরুয়াইল এলাকার গরীব, জেলে, নিরীহ মানুষদের শান্তিতে বসবাস করার সুযোগ করে দিন।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন গাজী মো. বোরহান উদ্দিন।
ওসি আসলাম হোসেন বলেন, ‘মানবতার বৃহৎ কল্যাণের জন্যই প্রত্যেক ধর্মের সৃষ্টি। প্রত্যেক ধর্মই তার নিজ নিজ অনুসারীদের নিজ ধর্ম পালনের জন্য যেমন উৎসাহিত করে, তেমনিভাবে ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি হিংসা-বিদ্বেষ পোষণ করতে নিষেধ করে।
তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের কাছে চোর, দলাল, বাটপারদের জায়গা নাই। যারা এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা নষ্ট করবে তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। আমরা সমাজের ভালো মানুষদের সম্মান করি।

Categories