অবসর কল্যাণ বোর্ড বাতিল ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চায় শিক্ষক সমাজ

প্রকাশিত: ৬:৫৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৫, ২০২০

অবসর,কল্যাণ ট্রাস্ট বোর্ড গঠনের পর থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত যে দল যখন রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকে, তখন ঐ দলের পদলোভী ব্যক্তি রাজনৈতিক দলের পদ ব্যবহার করে, বিভিন্ন লবিংয়ের মাধ্যমে সচিব, সদস্য হয় কিন্তু তাদের মাধ্যেমে ভোগান্তি দূর হওয়ার কথা, স্থায়ী পেনশন আশা করা অকল্পনীয় এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারী। অথচ দিন বদলের অঙ্গীকার নিয়ে কত কিছু পরিবর্তন হচ্ছে, ডিজিটাল হচ্ছে কিন্তু বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারী এখনোও বৈষম্যের মধ্যে রয়ে গেল।

তাই বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী অবসর ও কল্যাণ তহবিল সমন্ধে কথিত ও আত্ন স্বীকৃতি শিক্ষক নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন এজন্য ধন্যবাদ, মিথ্যা গোজামিল দিয়ে একটি ভুয়া খবর পরিবেশন করলেন যার স্পষ্টভাবে ব্যাখ্যা দেওয়ার ক্ষমতা আপনাদের কখনো ছিল না এখনোও নেই, তবে একজন শিক্ষক হিসেবে আমার সহ গোটা শিক্ষক সমাজের জানার অধিকার আছে, সেই অধিকার থেকে জিজ্ঞেস করছি আশা করি আপনি উত্তর দিবেন,

অতিরিক্ত ৪% কর্তন করেছেন কোন নীতি মালার আলোকে? কোন ধারায়? এজন্য আপনি কি করেছেন একজন শিক্ষক নেতা হিসেবে ? আপনার কি অবদান শিক্ষকদের স্বার্থে? অতিরিক্ত ৪% এর জন্য কি পেরেছেন শিক্ষকদের অতিরিক্ত সুবিধা দিতে? পারেননি, তাহলে কেন ৪% দিলেন? শিক্ষক কর্মচারীর রক্তাক্ত ও ঘর্মাক্ত উপার্জন কেটে দিলেন সরকারের কাছে বাহবা নিতে, নিজের গাড়ী বাড়ি করতে,

আপনার বক্তব্যে আপনি বলেছেন শিক্ষকগন অবসরে গেলে ছাতি, জায়নামাজ,,,,,,,, নিয়ে বিদায় নেন, ব্যদনার কথা৷ তাও কিছু পেয়েছে জীবনদর্শায়, আজ অবসরে যাওয়ার পর বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হয় নিজের জমানো টাকা পেতে, নিজের কল্যাণের জন্য টাকা জমিয়ে বৃদ্ধ বয়সে চিকিৎসার জন্য টাকা নেই? মৃত্যুর পর সৎকার করতে কাফনের কাপড় কিনতে প্রতিবেশীর দিকে তাকাই থাকতে হবে, এরুপ কল্যাণে তহবিলের কি প্র‍য়োজন? নেতা হয়েছেন কখনও কি খোজ নিয়েছেন? কেউ জীবনের চরম সংকট মুহুর্তে কল্যাণ তহবিলের টাকা পেয়েছে? না না না, গোটা দেশে এমন একজনও না। তাহলে এ কল্যাণ তহবিলের কি প্রয়োজন?

২৫% ৫০% থেকে আজ পর্যন্ত ১% বোনাস বৃদ্ধি করতে পারেন নি, নেতা সেজেছেন, কেন পারেননি? কি তার জবাব? পূর্ণাঙ্গ বাড়ী ভাড়া, চিকিৎসা ভাতা আদায় করতে পারেননি। ১৪ দফাযুক্ত স্বারক লিপি দিলেন নেতারা – জাতীয় করণের দফা ১৪ নং উৎসব ভাতার দফা ৯নং। নিজেদের বিবেকের কাছে প্রশ্ন করে দেখুন! এটি যুক্তি যুক্ত কি?

বিএড স্কেল উচ্চতর স্কেল এর ব্যাখ্যা কি দেবিন? কি করেছেন ? নেতারা সবাই প্রধান শিক্ষক, এই জন্য সহকারী শিক্ষকদের কথা ভাবার সময় হয়নি,
সবশেষে সকল শিক্ষক নেতাদের উদ্দেশ্যে অনুরোধ করছি অসহায় শিক্ষক কর্মচারী নিয়ে নিজের ভাগ্য পরিবর্তন করার চেষ্টা বাদ দিয়ে সকালের ভাগ্য উন্নয়নে সবাই এক জোট হয়ে সকলকে সংগে নিয়ে জাতীয় করণের আন্দোলন বেগবান করি। শিক্ষায় সকল নাগরিকদের সমান অধিকার নিশ্চিত সহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন বাস্তবায়ন করি। শিক্ষক সমাজ আশাবাদী পিতার লালিত বাস্তবায়ন করবেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতীয়করণ ঘোষণা মাধ্যমে, মুজিব বর্ষে, স্বাধীনতা সূবর্ণ জয়ান্তীর মধ্যে

মো : তোফায়েল সরকার,

যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক
বাংলাদেশ বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম,( কেন্দ্রীয় কমিটি)।


Categories