অনুপাত প্রথা বিবেকহীন প্রথা, উচ্চ শিক্ষা ধ্বংসের প্রথা, বাতিলের জোর দাবি

প্রকাশিত: ৩:২২ অপরাহ্ণ, জুলাই ৭, ২০২০

চাকুরি জীবনে পদন্নোতি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কর্ম স্পৃহা, যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা, দক্ষতা মূল্যায়নে পদোন্নতি ব্যবস্থার গুরুত্ব অপরিসীম। অনুপাত প্রথার কারণে কলেজ, মাদ্রাসা,কারিগরির সকল প্রভাষক পদোন্নতি পাচ্ছে না।

প্রভাষকদের পদোন্নতির বিষয়ে সারা জীবন মাত্র একটি প্রমোশনের কথা থাকলেও সেই পদোন্নতির স্বপ্ন এই ‘অনুপাত প্রথা’ সবকিছু মাটি করে দেয়। একটু চিন্তা করলে বুঝতে পারার কথা , শুধু শিক্ষকতা পেশা নয়, যে কোনো পেশার মানুষ চাকরি জীবনে যদি একটি পদবি নিয়ে অবসর নিতে হয় তাহলে সেই মানুষটির কাজের গতি মন্থর হওয়াটা স্বাভাবিক।

অনুপাত প্রথা (৫ঃ২) এর কারণে একই স্কেলে, একই দিনে, একই যোগ্যতায় নিয়োগ প্রাপ্ত হয়ে ৮বছর পর কেউ বেতন পাবেন ৩৫,৫০০ টাকা,আর কেউ ১০ বছর পর পাবেন ২৩০০০ টাকা।একজনের ৮বছর পর বেতন বৃদ্ধি পাবে ১৩,৫০০ টাকা, অন্যজন একদিন পরে জন্মগ্রহণ করার কারণে ১০ বছর পর বেতন বৃদ্ধি পাবে মাত্র ১০০০টাকা!!

এই অনুপাত প্রথা যে বিবেকহীন পথা, এটা যে উচ্চ শিক্ষা ধ্বংসের পথা, তা একজন পাগলের ও বুঝার কথা।

তাই উন্নত জাতি গঠন করতে হলে, জাতিকে উন্নত শিক্ষা দিতে হলে,উচ্চ শিক্ষাকে ধ্বংসের হাত থেকে হেফাজত করতে হলে প্রভাষকদেরকে গতিশীল করার কোনো বিকল্প নেই। প্রভাষকদের গতিশীল করতে তাদের প্রমোশন দেয়াটা খুবই জরুরি।

বেসরকারি কলেজ, মাদ্রাসা, কারিগরি প্রভাষকদের প্রমোশনের জন্য ‘অনুপাত প্রথা’ (৫ঃ২)বাতিল করা এখন সময়ের যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

আগামী ৯ জুলাই ২০২০ এমপিও নীতিমালা সংশোধনী চুড়ান্তকরণের প্রাক্কালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা উপমন্ত্রী ও শিক্ষাসচিব সহ সংশ্লিষ্ট সকলের কাছে দেশের কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরির হাজার হাজার প্রভাষকদের পক্ষে নিম্নোক্ত সুপারিশমালা পেশ করছি।

১) অনুপাত প্রথা বাতিল করে একটি নির্দিষ্ট সময় পর সকল প্রভাষককে সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দিতে হবে।সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক পদ সৃষ্টি করতে হবে।

২) প্রভাষকদের ১০ বছর পূর্তিতে ৭ম গ্রেড প্রদান করতে হবে।

৩) অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রভাষকদের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ পদে আবেদনের সুযোগ দিতে হবে।

৪) সর্বোপরি মুজিববর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে চলতি বছরেই শিক্ষাব্যাবস্থা জাতীয়করণের ঘোষণা চাই।

মোঃ মনিরুল ইসলাম
সদস্য,
বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম, কেন্দ্রীয় কমিটি ।

আরবি প্রভাষক,
চান্দেরচর দারুল ইসলাম আলিম মাদ্রাসা।
হোমনা, কুমিল্লা।


Categories